RESIST FASCIST TERROR IN WB BY TMC-MAOIST-POLICE-MEDIA NEXUS

(CLICK ON CAPTION/LINK/POSTING BELOW TO ENLARGE & READ)

Sunday, February 12, 2017

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের তদন্তকারী সংস্থাগুলির বাজেয়াপ্ত করা নথিপত্র ও দলিলে গুজরাটের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মোদী এবং আরো তিনজন বি জে পি মুখ্যমন্ত্রীর বিপুল ঘুষ নেবার কাহিনি সামনে এসেছে। আদিত্য বিড়লা এক বৃহৎ কর্পোরেট সংস্থা যাদের হাতে খনি, বস্ত্র, ধাতু, সিমেন্ট, রসায়নসহ নানা ব্যবসা আছে। সাহারা গোষ্ঠীও বিশাল প্রতিপত্তির মালিক যাদের বিরুদ্ধে বহু জালিয়াতি ও প্রতারণার অভিযোগের মামলা চলছে। ইউ পি এ সরকারের আমলে কয়লার খাদান অবৈধভাবে বিলিবণ্টনের অভিযোগের তদন্ত তখন থেকেই শুরু হয়েছে। আদিত্য বিড়লা গোষ্ঠীর হিন্দালকো ইন্ডাস্ট্রিজের বিরুদ্ধে এই অভিযোগে মামলা চলছে। ২০১৩ সালের ১৫ই অক্টোবর দেশের চারটি শহরে এই কোম্পানির অফিসে তল্লাশি ও হানা দিয়ে সি বি আই বিপুল পরিমাণ নথিপত্র উদ্ধার করে। তাতে দেখা যায় এই কোম্পানি বেশ কয়েক বছর ধরে বি জে পি, কংগ্রেস ও কয়েকটি দলের নেতা এবং বিভিন্ন আমলাকে কোটি কোটি টাকার বেহিসেবি নগদ অর্থ ঘুষ দিয়েছে। কেন্দ্রীয় আয়কর দপ্তর এইসব নথিপত্র ঘেঁটে অনেকের সাক্ষ্য নিয়ে একটি রিপোর্ট তৈরি করে। সেখানে এই কোম্পানির হিসাব বিভাগের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজারের হাতে লেখা ৪৯ পাতার একটি ডায়েরি উদ্ধার করে। এই ডায়েরিতে দেখা যায় ২০১০ সালের জুলাই থেকে ২০১২ সালের মার্চের মধ্যে কাকে, কখন, কার মাধ্যমে ঘুষ দেওয়া হয়েছে তা লিপিবদ্ধ আছে। কোম্পানির এই অফিসার তদন্তকারী সংস্থার কাছে স্বীকার করেছে এই ডায়েরির হাতের লেখা তাঁরই। এই কোম্পানি তেরটি প্রকল্পের জন্য পরিবেশ ও বনদপ্তরের ছাড় পেতে বহুজনকে ঘুষ দিয়েছে। এই কোম্পানির একজিকিউটিভ প্রেসিডেন্টের কমপিউটার থেকে ২০১২ সালের ১৬ই নভেম্বর পাঠানো এক ই-মেল বার্তা উদ্ধার হয়েছে যেখানে লেখা আছে ‘‘গুজরাট সি এম (মুখ্যমন্ত্রী) —২৫কোটি (১২ কোটি দেওয়া হয়েছে – বাকিটা ?)’’ গুজরাটে এই কোম্পানির কসটিক সোডা উৎপাদনের ইউনিট ‘অ্যালকালি কেমিকেলস্‌’-র সুবিধা আদায় করার জন্য এই অর্থ ঘুষ দেওয়া হয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। কোম্পানির এই প্রেসিডেন্ট তদন্তকারী সংস্থার কাছে স্বীকার করেছেন যে ই-মেল-টি তাঁরই, তবে ‘এগুলি একেবারেই তাঁর নিজস্ব ব্যক্তিগত নোট।’ -Courtesy: মৃদুল দে

No comments: