RESIST FASCIST TERROR IN WB BY TMC-MAOIST-POLICE-MEDIA NEXUS

(CLICK ON CAPTION/LINK/POSTING BELOW TO ENLARGE & READ)

Friday, June 19, 2015

SARADHA CHIT FUND AND KUNAL GHOSH - সংশোধনী বিলটি নিয়ে আলোচনার সময় বিধানসভায় সরকারের তিন মন্ত্রী অমিত মিত্র, পার্থ চ্যাটার্জি এবং চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের একজনও আর রেট্রোস্পেকটিভ এফেক্ট দেওয়ার বিষয়ে একটি কথাও বলেননি। বরং রাষ্ট্রপতির সম্মতি শর্ত হিসাবে সেই ২২নম্বর ধারায় সংশোধন করে নেওয়ার কথা বলেছেন। ২২নম্বর ধারার ২নম্বর উপধারায় বলা ছিলো, ‘কমিশন অব এনকোয়ারি অ্যাকট (১৯৫২) অনুসারে গঠিত কোনো কমিশন (অর্থাৎ শ্যামল সেন কমিশন) আইনটি কার্যকরী হওয়ার পরে সরকারের কাছে আর্থিক সংস্থাগুলির অপরাধ নিয়ে কোনো রিপোর্ট দিলে সংস্থার সম্পত্তি আটক ও দখল নেওয়ার জন্য আইনটি ব্যবহার করা যাবে।’ এই অংশটির কোনো পরিবর্তন সরকার করেনি। তবে ২২নম্বর ধারায় প্রচলিত আইনগুলির সঙ্গে বর্তমান আইনের কোনো বিরোধ হলে বর্তমান আইনটিকেই কার্যকরী হওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছিলো। সেই অংশটিকে সংশোধন করে ফের প্রচলিত আইনকেই অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। এই কারণে সূর্য মিশ্র বিধানসভায় বলেন, রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে সুনির্দিষ্টভাবে আপনারা কী বার্তা পেয়েছিলেন? কোন মুচলেকা দিয়ে শর্তসাপেক্ষে বিলটিতে রাষ্ট্রপতির সম্মতি পাওয়া গেছে, তা বিধানসভাকে জানাচ্ছেন না কেন? আমাদের আশঙ্কা আপনি আবারও অসাংবিধানিক অংশ বিলে রেখে দিচ্ছেন।

No comments: