RESIST FASCIST TERROR IN WB BY TMC-MAOIST-POLICE-MEDIA NEXUS

(CLICK ON CAPTION/LINK/POSTING BELOW TO ENLARGE & READ)

Tuesday, June 23, 2015

MAMATA BANERJEE BORROWS AGAIN - আজ আবার ১৫০০ কোটি টাকা ঋণ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। তিন মাসে ৪০০০ কোটি, চার বছরে ৮৮হাজার কোটি। নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা, ২২শে জুন — মঙ্গলবার বাজার থেকে আরও ১৫০০ কোটি টাকা ধার করছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। এই নিয়ে চলতি আর্থিক বছরের তিন মাসে রাজ্যের ঋণ নেওয়ার পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে ৪০০০কোটি টাকা। গত আর্থিক বছরে ঋণ নেওয়ার নিরিখে পশ্চিমবঙ্গ শীর্ষ স্থানে পৌঁছেছিল। ২০১৪-১৫-তে বাজার থেকে রাজ্য সরকার ধার নিয়েছিল ২১হাজার ৯০০কোটি টাকা। গত চার বছরে বারবার বাজার থেকে টাকা ধার করেছেন মমতা ব্যানার্জি। সেই ধারের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮৬হাজার ৭৬৪কোটি টাকা। মঙ্গলবার ধার নেওয়া আরও দেড় হাজার কোটি সেই পরিমাণ আরও কিছুটা বাড়িয়ে দেবে। প্রসঙ্গত, বামফ্রন্ট সরকারের চৌত্রিশ বছরে রাজ্যের বাজার থেকে নেওয়া ঋণের পরিমাণ ছিল ৭২হাজার কোটি টাকা। যার মাত্রা ইতিমধ্যেই পেরিয়ে গেছে তৃণমূল কংগ্রেসের সরকার। যদিও মমতা ব্যানার্জি বারবার প্রচার করেন যে, বামফ্রন্ট সরকার ১লক্ষ ৯২হাজার কোটি টাকা ঋণ করে গেছে। বাস্তবে তা নয়। বাজার থেকে চৌত্রিশ বছরে ধার ওই ৭২হাজার কোটি টাকা। যে ঋণ হয়েছিল বামফ্রন্ট সরকারের সময়কালে তার মধ্যে ছিল স্বল্প সঞ্চয়ের খাতে ঋণ। রাজ্যে যত অর্থ স্বল্পসঞ্চয়ে সংগৃহীত হয়, তার একটি অংশ কেন্দ্রীয় সরকারের আইন অনুযায়ী বাধ্যতামূলকভাবে রাজ্য সরকারকে নিতে হয়। চিট ফান্ডগুলির রমরমা আটকে গিয়েছিল বামফ্রন্ট সরকারের সময়কালে, কারণ ওই সময়ে স্বল্পসঞ্চয়ে পশ্চিমবঙ্গ দেশের মধ্যে অগ্রগণ্য ছিল। সেই কারণে, কেন্দ্রীয় আইন অনুসারে ৭৯হাজার কোটি টাকা ঋণ হয় কেন্দ্রের কাছে। বাজারে নয়। তাছাড়া কেন্দ্রীয় পরিকল্পনা খাতের বরাদ্দের ৭০শতাংশ রাজ্য সরকারকে ঋণ হিসাবে দেওয়া হয়। দীর্ঘদিন ধরে এর বিরোধিতা করেছে বামফ্রন্ট। যদিও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকাকালীন মমতা ব্যানার্জি রাজ্যের স্বার্থে এই নিয়ে কখনও বলেননি। সেই ঋণের পরিমাণ ছিলো ১২হাজার ৩০০কোটি টাকা বামফ্রন্ট সরকারের সময়কালে। নাবার্ডসহ বিভিন্ন কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠানের সাহায্য থেকে রাজ্যের চৌত্রিশ বছরে ঋণ দাঁড়ায় ৮হাজার ৫০০কোটি টাকা। পি এফ তহবিলে ঋণের পরিমাণ ছিলো ৮হাজার কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় সরকার আর্থিক বছরের শেষ লগ্নে টাকা পাঠানোয় কখনও কখনও টাকা খরচ করা যায় না। খরচ না হওয়া ওই টাকা পরের আর্থিক বছরের ধারের তালিকায় ঢুকে পড়তো। এমন ১২হাজার কোটি টাকাও চৌত্রিশ বছরে ঋণের তালিকায় রয়েছে। এইসব নিয়ে ঋণের পরিমাণ দাঁড়ায় ১লক্ষ ৯২হাজার কোটি টাকা। মমতা ব্যানার্জির সরকার চার বছরে বাজার থেকেই ঋণ নিয়েছে বামফ্রন্ট সরকারের চৌত্রিশ বছরের থেকে বেশি। চলতি আর্থিক বছরের প্রথম মাসে, অর্থাৎ এপ্রিলে রাজ্য সরকার ১০০০কোটি টাকা ধার করেছে। মে-তে আরও ১৫০০ কোটি টাকা ঋণ নেওয়া হয়েছে বাজার থেকে। সেই ঋণ নেওয়া হয়েছিল গত ২৬শে মে। এবার মাস পেরনোর আগেই আবার ১৫০০কোটি টাকা ধার নেওয়া হচ্ছে বাজার থেকে। কলকাতা, ২২শে জুন — সোমবার নবান্নে অর্থদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এই জুনে আরও এগারোটি রাজ্য বাজার থেকে ধার নিচ্ছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সূত্রে জানা গেছে সর্বাধিক ঋণ নিচ্ছে উত্তর প্রদেশ — ১৬০০কোটি টাকা। তারপরেই স্থান পশ্চিমবঙ্গের।

No comments: