RESIST FASCIST TERROR IN WB BY TMC-MAOIST-POLICE-MEDIA NEXUS

(CLICK ON CAPTION/LINK/POSTING BELOW TO ENLARGE & READ)

Friday, February 28, 2014

বীরভূমে দুই সভায় মদন ঘোষ দুর্নীতিগ্রস্তদের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে বামপন্থীদের ভোট দিন

Ganashakti



লোকসভা ভোট পর্যন্তই সমর্থন মমতাকে, জানালেন হাজারে

Ganashakti



লোকসভা ভোট পর্যন্তই সমর্থন মমতাকে, জানালেন হাজারে

Ganashakti



গুজরাট গণহত্যার অজুহাত গোধরায় ট্রেনে আগুনের রহস্য আজও অস্পষ্টই - See more at: http://ganashakti.com/bengali/national.php#sthash.uMFSpU4I.dpuf

Ganashakti



প্রতিবন্ধী কিশোরীকে বারংবার ধর্ষণ, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত যুবক - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52637#sthash.SmBuxDdV.dpuf

Ganashakti



প্রতিবন্ধী কিশোরীকে বারংবার ধর্ষণ, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত যুবক - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52637#sthash.SmBuxDdV.dpuf

Ganashakti



বহরমপুর ২৭শে ফেব্রুয়ারি – পরিবারের পাশে মহিলা সমিতি দৌলতাবাদে ধর্ষিতা ছাত্রী হুমকির জেরে স্কুলে যেতে পারছে না, অধরা প্রধান অভিযুক্ত| মুর্শিদাবাদের দৌলতাবাদ থানার কলাডাঙা পশ্চিমপাড়া গ্রামের ধর্ষিতা কিশোরী অভিযোগ জানানোর পর থেকে লাগাতার হুমকির মুখে। গত শনিবার ওই ঘটনার পর থেকে হুমকির জেরে ঐ কিশোরী ছাত্রীটির স্কুল যাওয়াও বন্ধ হয়ে গিয়েছে। অভিযুক্তদের পরিবারের পক্ষ থেকেই এই হুমকি আসছে বলে নির্যাতিতার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার নির্যাতিতা ও তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে গ্রামে গিয়ে দেখা করেন গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির জেলা নেতৃত্ব। মহিলা নেতৃত্ব নির্যাতিতা ও পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। এই ঘটনার মূল অভিযুক্তকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পুলিস গ্রেপ্তার করতে পারেনি। নির্যাতিতার পরিবারে এই ঘটনার পর থেকে আতঙ্ক গ্রাস করেছে। এদিন মহিলা নেতৃত্বের সামনে সেদিনের ভয়ঙ্কর অত্যাচারের কথা বলতে গিয়ে বার বার কান্নায় গলা বুজে আসতে থাকে ধর্ষিতা ছাত্রীটির। মহিলা নেতৃত্ব সেদিনের সেই শিউড়ে উঠা ঘটনার বিবরণ শুনতে শুনতে তাদের উদ্বেগ চেপে রাখতে পারেননি। মহিলা নেত্রী শ্বেতা চন্দ্র, সুলেখা চৌধুরী, স্বপ্না গুহ, শেখ হাসিনা, বাসনা দাস সহ অন্যান্যরা এদিন দেখা করেন ছাত্রীটির সঙ্গে। গত শনিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি সন্ধেতে ক্লাস সিক্সে পড়া এক ছাত্রীকে মোটরবাইকে করে তুলে নিয়ে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের করে কিছু যুবক। একেবারে বেহুঁশ অবস্থায় ঐ ছাত্রীকে কয়েক ঘণ্টা পর মোটরবাইকে চাপিয়ে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে রাস্তার পাশে ফেলে যায় দুষ্কৃতীরা। এর একদিন পর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। একজন অভিযুক্তের পাঁচদিনের পুলিসী হেফাজতে তদন্ত চলছে। এরই মাঝে অবস্থাপন্ন পরিবার ও শাসকদলের ঘনিষ্ঠতার সুযোগ নিয়ে নির্যাতিতার পরিবারের লোকজনেরা হুমকি অব্যাহত রেখেছেন। গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির মুর্শিদাবাদ জেলা সভানেত্রী সুলেখা চৌধুরী বলেন, নির্যাতিতার পরিবারের পাশে থেকে সমস্ত রকমের সাহায্য দেওয়া হবে। তাদের উপর যে হুমকি চলছে তার বিরুদ্ধে ও সমস্ত অভিযুক্তের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে পুলিসের কাছে ডেপুটেশনও দেওয়া হবে।

Ganashakti



বহরমপুর ২৭শে ফেব্রুয়ারি – পরিবারের পাশে মহিলা সমিতি দৌলতাবাদে ধর্ষিতা ছাত্রী হুমকির জেরে স্কুলে যেতে পারছে না, অধরা প্রধান অভিযুক্ত| মুর্শিদাবাদের দৌলতাবাদ থানার কলাডাঙা পশ্চিমপাড়া গ্রামের ধর্ষিতা কিশোরী অভিযোগ জানানোর পর থেকে লাগাতার হুমকির মুখে। গত শনিবার ওই ঘটনার পর থেকে হুমকির জেরে ঐ কিশোরী ছাত্রীটির স্কুল যাওয়াও বন্ধ হয়ে গিয়েছে। অভিযুক্তদের পরিবারের পক্ষ থেকেই এই হুমকি আসছে বলে নির্যাতিতার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার নির্যাতিতা ও তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে গ্রামে গিয়ে দেখা করেন গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির জেলা নেতৃত্ব। মহিলা নেতৃত্ব নির্যাতিতা ও পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। এই ঘটনার মূল অভিযুক্তকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পুলিস গ্রেপ্তার করতে পারেনি। নির্যাতিতার পরিবারে এই ঘটনার পর থেকে আতঙ্ক গ্রাস করেছে। এদিন মহিলা নেতৃত্বের সামনে সেদিনের ভয়ঙ্কর অত্যাচারের কথা বলতে গিয়ে বার বার কান্নায় গলা বুজে আসতে থাকে ধর্ষিতা ছাত্রীটির। মহিলা নেতৃত্ব সেদিনের সেই শিউড়ে উঠা ঘটনার বিবরণ শুনতে শুনতে তাদের উদ্বেগ চেপে রাখতে পারেননি। মহিলা নেত্রী শ্বেতা চন্দ্র, সুলেখা চৌধুরী, স্বপ্না গুহ, শেখ হাসিনা, বাসনা দাস সহ অন্যান্যরা এদিন দেখা করেন ছাত্রীটির সঙ্গে। গত শনিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি সন্ধেতে ক্লাস সিক্সে পড়া এক ছাত্রীকে মোটরবাইকে করে তুলে নিয়ে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের করে কিছু যুবক। একেবারে বেহুঁশ অবস্থায় ঐ ছাত্রীকে কয়েক ঘণ্টা পর মোটরবাইকে চাপিয়ে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে রাস্তার পাশে ফেলে যায় দুষ্কৃতীরা। এর একদিন পর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। একজন অভিযুক্তের পাঁচদিনের পুলিসী হেফাজতে তদন্ত চলছে। এরই মাঝে অবস্থাপন্ন পরিবার ও শাসকদলের ঘনিষ্ঠতার সুযোগ নিয়ে নির্যাতিতার পরিবারের লোকজনেরা হুমকি অব্যাহত রেখেছেন। গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির মুর্শিদাবাদ জেলা সভানেত্রী সুলেখা চৌধুরী বলেন, নির্যাতিতার পরিবারের পাশে থেকে সমস্ত রকমের সাহায্য দেওয়া হবে। তাদের উপর যে হুমকি চলছে তার বিরুদ্ধে ও সমস্ত অভিযুক্তের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে পুলিসের কাছে ডেপুটেশনও দেওয়া হবে।

Ganashakti



রাজ্যে নারী নির্যাতন নিয়ে জাতীয় মহিলা কমিশনের চিঠি অধীরকে, প্রশ্ন তুললো তৃণমূল নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা, ২৭শে ফেব্রুয়ারি- মমতা ব্যানার্জির সরকারের আমলে পশ্চিমবঙ্গে নারী নির্যাতনের ঘটনা বাড়ছে। মহিলা মুখ্যমন্ত্রী আমলেই এরাজ্যে যেভাবে একের পর এক মহিলা নিগ্রহ, ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে তাতে রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ করেই মহিলা কমিশন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে আরও ‘সতর্ক’ থাকার পরামর্শ দিয়েছে। এই বিষয়ে তারা একটি চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীকে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অধীর চৌধুরীকে চিঠি লিখে রাজ্যজুড়ে মহিলা নিগ্রহের ঘটনাই এভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন মমতা শর্মা। মহিলা কমিশনের এই অভিযোগকে গুরুত্ব না দিয়েই এদিন শাসক দলের এক শীর্ষ নেতা কমিশনের এক্তিয়ার নিয়েই অভিযোগ তুলেছেন। প্রদেশ সভাপতিকে চিঠি দেওয়ার বিষয়টি তাঁরা নজরে রাখছেন বলেও জানিয়েছেন। আদৌ মহিলা কমিশন এভাবে প্রদেশ সভাপতিকে চিঠি দিতে পারে কিনা সেই প্রশ্নও তোলা হয়েছে। যদিও এদিন রাতে অধীর চৌধুরী জানান, ‘বিষয়টিতে অস্বাভাবিক কী আছে। উনি আমাকে অনুরোধ করেছেন। আর যা বলেছেন চিঠিতে তা তো সত্যি। নারী নির্যাতনের ঘটনা ভয়াবহ চেহারা নিয়েছে রাজ্যে। আমাকে উদ্যোগ নিতে বলেছেন। এতে অসুবিধার কী আছে’। চিঠি লিখে উদ্বেগ প্রকাশের আগে গত ১১ই ফেব্রুয়ারি এরাজ্যে আসেন জাতীয় মহিলা কমিশনের এক প্রতিনিধি দল। বীরভূমের লাভপুর ও হাওড়ার আমতায় নিগৃহীতা মহিলাদের সঙ্গে কথাও বলেন। দুটি ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট নিয়ে ফিরে যাওয়ার আগে প্রতিনিধি দলের তরফে মমতা শর্মা সরকারের বিরুদ্ধেই অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন। একের পর এক ধর্ষণ ও নারী নিগ্রহের ঘটনা বন্ধে ‘সরকারের আলস্যে’ রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। মহিলাদের ওপর আক্রমণ বন্ধে মহিলা মুখ্যমন্ত্রীর আরও সংবেদনশীলতার প্রয়োজন ছিল বলেই তিনি মন্তব্য করেন। যদিও সে সময়তে শাসক তৃণমূলের তরফে মমতা শর্মার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে তাঁকে ‘সি পি এমের লোক’ বলেই কটূক্তি করা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অধীর চৌধুরীকে লেখা চিঠিতে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ভূমিকার সমালোচনা করে মমতা শর্মা বলেন, এর আগে পার্ক স্ট্রিট ধর্ষণকাণ্ডের ক্ষেত্রেও মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন ঘটনাটি সাজানো এবং সরকারের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু, সত্যিটা হল, এই ঘটনা সাজানো ছিল না। পশ্চিমবঙ্গে নারী নির্যাতনের ঘটনা ক্রমাগত বাড়ছে। রাজ্য সরকার তা আটকাতে পারছে না’। মমতা শর্মা রাজ্যের এই পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করেই বলেন, রাজ্য সরকারের আরও কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত। যাতে এধরনের অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে, নারী নিরাপত্তার বিষয়ে মমতা ব্যানার্জির আরও সতর্ক হওয়া উচিত। মমতা শর্মার অভিযোগ, রাজ্যের পুলিসও মহিলাদের রক্ষা করতে ব্যর্থ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ের করার পরিবর্তে তারা ঘটনাগুলি চাপা দিতে বেশি সচেষ্ট ফলে অভিযোগকারিণীরা বিচার পান না। তবে মহিলা কমিশন এই প্রথম রাজ্যে নারী নির্যাতন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলো তা নয়। মমতা ব্যানার্জির সরকারের প্রথম পর্বে, ২০১২সালের প্রথম দিকে পার্ক স্ট্রিট কাণ্ডসহ একের পর ঘটনা ঘটে। জাতীয় মহিলা কমিশনের তরফে সেই সময় রিপোর্টেও পশ্চিমবঙ্গের এই উদ্বেগজনক চিত্রের কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে এরাজ্যে কোথাও দিনে-রাতের কোনো সময়েই মহিলারা নিরাপদ নন। ৭ থেকে ৭২, সব বয়সের মহিলাই ধর্ষিতা হয়েছেন গত কয়েক মাসে। যদিও তারপরেও কমিশনে পর্যবেক্ষণকে কোনোরকম গুরুত্ব দিতে অস্বীকার করেছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। অধীর চৌধুরীকে উদ্দেশ্যে করে লেখা চিঠিতে এই ঘটনায় তাঁকে হস্তক্ষেপের অনুরোধ জানানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই বিষয়গুলি নিয়ে তাঁকে দরবার করার অনুরোধও জানানো হয়েছে। শাসক তৃণমূলের তরফে এখানেই প্রশ্ন তোলা হয়েছে রাজ্যপালকে চিঠি না দিয়ে একটি দলের সভাপতিকে কেন চিঠি দিল মহিলা কমিশন? - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52638#sthash.kDXO4gdF.dpuf

Ganashakti



রাজ্যে নারী নির্যাতন নিয়ে জাতীয় মহিলা কমিশনের চিঠি অধীরকে, প্রশ্ন তুললো তৃণমূল নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা, ২৭শে ফেব্রুয়ারি- মমতা ব্যানার্জির সরকারের আমলে পশ্চিমবঙ্গে নারী নির্যাতনের ঘটনা বাড়ছে। মহিলা মুখ্যমন্ত্রী আমলেই এরাজ্যে যেভাবে একের পর এক মহিলা নিগ্রহ, ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে তাতে রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ করেই মহিলা কমিশন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে আরও ‘সতর্ক’ থাকার পরামর্শ দিয়েছে। এই বিষয়ে তারা একটি চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীকে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অধীর চৌধুরীকে চিঠি লিখে রাজ্যজুড়ে মহিলা নিগ্রহের ঘটনাই এভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন মমতা শর্মা। মহিলা কমিশনের এই অভিযোগকে গুরুত্ব না দিয়েই এদিন শাসক দলের এক শীর্ষ নেতা কমিশনের এক্তিয়ার নিয়েই অভিযোগ তুলেছেন। প্রদেশ সভাপতিকে চিঠি দেওয়ার বিষয়টি তাঁরা নজরে রাখছেন বলেও জানিয়েছেন। আদৌ মহিলা কমিশন এভাবে প্রদেশ সভাপতিকে চিঠি দিতে পারে কিনা সেই প্রশ্নও তোলা হয়েছে। যদিও এদিন রাতে অধীর চৌধুরী জানান, ‘বিষয়টিতে অস্বাভাবিক কী আছে। উনি আমাকে অনুরোধ করেছেন। আর যা বলেছেন চিঠিতে তা তো সত্যি। নারী নির্যাতনের ঘটনা ভয়াবহ চেহারা নিয়েছে রাজ্যে। আমাকে উদ্যোগ নিতে বলেছেন। এতে অসুবিধার কী আছে’। চিঠি লিখে উদ্বেগ প্রকাশের আগে গত ১১ই ফেব্রুয়ারি এরাজ্যে আসেন জাতীয় মহিলা কমিশনের এক প্রতিনিধি দল। বীরভূমের লাভপুর ও হাওড়ার আমতায় নিগৃহীতা মহিলাদের সঙ্গে কথাও বলেন। দুটি ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট নিয়ে ফিরে যাওয়ার আগে প্রতিনিধি দলের তরফে মমতা শর্মা সরকারের বিরুদ্ধেই অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন। একের পর এক ধর্ষণ ও নারী নিগ্রহের ঘটনা বন্ধে ‘সরকারের আলস্যে’ রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। মহিলাদের ওপর আক্রমণ বন্ধে মহিলা মুখ্যমন্ত্রীর আরও সংবেদনশীলতার প্রয়োজন ছিল বলেই তিনি মন্তব্য করেন। যদিও সে সময়তে শাসক তৃণমূলের তরফে মমতা শর্মার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে তাঁকে ‘সি পি এমের লোক’ বলেই কটূক্তি করা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অধীর চৌধুরীকে লেখা চিঠিতে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ভূমিকার সমালোচনা করে মমতা শর্মা বলেন, এর আগে পার্ক স্ট্রিট ধর্ষণকাণ্ডের ক্ষেত্রেও মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন ঘটনাটি সাজানো এবং সরকারের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু, সত্যিটা হল, এই ঘটনা সাজানো ছিল না। পশ্চিমবঙ্গে নারী নির্যাতনের ঘটনা ক্রমাগত বাড়ছে। রাজ্য সরকার তা আটকাতে পারছে না’। মমতা শর্মা রাজ্যের এই পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করেই বলেন, রাজ্য সরকারের আরও কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত। যাতে এধরনের অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে, নারী নিরাপত্তার বিষয়ে মমতা ব্যানার্জির আরও সতর্ক হওয়া উচিত। মমতা শর্মার অভিযোগ, রাজ্যের পুলিসও মহিলাদের রক্ষা করতে ব্যর্থ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ের করার পরিবর্তে তারা ঘটনাগুলি চাপা দিতে বেশি সচেষ্ট ফলে অভিযোগকারিণীরা বিচার পান না। তবে মহিলা কমিশন এই প্রথম রাজ্যে নারী নির্যাতন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলো তা নয়। মমতা ব্যানার্জির সরকারের প্রথম পর্বে, ২০১২সালের প্রথম দিকে পার্ক স্ট্রিট কাণ্ডসহ একের পর ঘটনা ঘটে। জাতীয় মহিলা কমিশনের তরফে সেই সময় রিপোর্টেও পশ্চিমবঙ্গের এই উদ্বেগজনক চিত্রের কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে এরাজ্যে কোথাও দিনে-রাতের কোনো সময়েই মহিলারা নিরাপদ নন। ৭ থেকে ৭২, সব বয়সের মহিলাই ধর্ষিতা হয়েছেন গত কয়েক মাসে। যদিও তারপরেও কমিশনে পর্যবেক্ষণকে কোনোরকম গুরুত্ব দিতে অস্বীকার করেছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। অধীর চৌধুরীকে উদ্দেশ্যে করে লেখা চিঠিতে এই ঘটনায় তাঁকে হস্তক্ষেপের অনুরোধ জানানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই বিষয়গুলি নিয়ে তাঁকে দরবার করার অনুরোধও জানানো হয়েছে। শাসক তৃণমূলের তরফে এখানেই প্রশ্ন তোলা হয়েছে রাজ্যপালকে চিঠি না দিয়ে একটি দলের সভাপতিকে কেন চিঠি দিল মহিলা কমিশন? - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52638#sthash.kDXO4gdF.dpuf

Ganashakti



লোকসভা নির্বাচন : বিকল্পনীতি ও ধর্মনিরপেক্ষতার জন্য সংগ্রাম সুশোভন পাত্র ২০০৯-র লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময় অনেকেই ভেবেছিলেন জাতীয় রাজনীতি নিশ্চিত ভাবেই ইউ পি এ এবং এন ডি এ-র দ্বিমেরু প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সীমাবদ্ধ হয়ে গেছে। ২০১৪-র শুরুতেই এই ধারণা কিছুটা হলেও অনিশ্চিত মনে হচ্ছে। বিশেষ করে যখন ইউ পি এ এবং এন ডি এ-র বেশির ভাগ জোটসঙ্গী নির্বাচনে স্বাধীনভাবে লড়াই করতে এবং নির্বাচন পরবর্তী সময়ে জোটের সমস্ত রকম সম্ভাবনা খোলা রাখতে চাইছেন। অন্যদিকে বি জে পি-র অবস্থা কমল কুমার মজুমদারের ‘মরণযাত্রা’ উপন্যাসের মৃত্যুপথযাত্রী বৃদ্ধ কুলীন ব্রাহ্মণের মতো। যিনি সতীদাহ প্রথা সম্পন্ন করতে বিয়ে করা সুন্দরী স্ত্রীকে দেখেও সঞ্জীবনী খুঁজে পান। ২০০৪-র লোকসভা নির্বাচনে ব্যাপক হারের পর অভিজ্ঞ নেতাদের সরে যাওয়া, অভ্যন্তরীণ মতভেদে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল হয়ে যাওয়া এবং জনমুখী কর্মসূচীর অভাবে রাজনৈতিক অভিমুখহীন বি জে পি, ক্ষমতাসীন কংগ্রেসের লাগামছাড়া দুর্নীতি, জনবিরোধী কার্যকলাপ এবং চরম অকর্মণ্যতার কারণে দেশজুড়ে তৈরি হওয়া তীব্র কংগ্রেস বিরোধী হাওয়াতে সঞ্জীবনী খুঁজে পেয়েছে। কংগ্রেস আর বি জে পি-র এই ক্ষমতা হস্তান্তর অনেকটা রিলে রেসে বেটন হস্তান্তরের মতই। শাসকের জন‍‌বিরোধী চরিত্রের লক্ষণীয় পরিবর্তন খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন। কারণ কংগ্রেস ও বি জে পি উভয়েই পুঁজিবাদী পরিমণ্ডলেই দেশ শাসন করে এসেছে। উভয় দলই উদারনীতির অনুগামী এবং ধনীকশ্রেণীর স্বার্থরক্ষী। অনেক সময় নির্বাচনী ফলাফল এবং সাধারণ মানুষের মনোভাব সরলীকরণ এবং সূত্রবদ্ধ করা বেশ কঠিন। তাই বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে কংগ্রেস এবং বি জে পি-র গতানুগতিক কার্যাবলী, আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলির কৌশলী অবস্থান এবং সদ্যসমাপ্ত চার রাজ্যের বিধানসভার ফলাফল, ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময় অনেক সম্ভাবনাই খোলা রাখছে। স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে জাতীয় রাজনীতির বুড়ো ঘোড়া কংগ্রেসের জনপ্রিয়তা ক্রমেই হ্রাস পেয়ে তলানিতে এসে ঠেকেছিল ১৯৯৮ সালে। মাত্র ২৫.৮২% সমর্থন ছিল তাঁদের ঝুলিতে। যা ৯০-র দশকের শুরুতে অর্জিত ৩৬.২৬%-র থেকে প্রায় ১১% কম। ১৯৯৯ এবং ২০০৪-এ তা সামান্য বেড়ে দাঁড়ায় যথাক্রমে ২৮.৩০% এবং ২৬.৫৩%। ২০০৪-এ তাঁদের জনসমর্থন প্রায় ২% কমে গেলেও তীব্র বি জে পি-বিরোধী হাওয়াতে তাঁরাই দিল্লির মসনদ দখল করে। ২০০৯-এ কংগ্রেস ২৮.৫% জনসমর্থনসহ পুনরায় ক্ষমতাসীনই হয় এবং নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বি জে পি-র থেকে তারা ভোটের অঙ্কে দূরত্ব অনেকটাই বাড়িয়ে নেয়। অন্যদিকে যে বি জে পি ১৯৯৮-এ ২৫.৫৯% সমর্থনসহ জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছেছিল তাঁরা পরবর্তী ১৯৯৯, ২০০৪-এ যথাক্রমে ২৩.৭৫% এবং ২২.১৬% সমর্থনসহ দ্রুত জনপ্রিয়তা হারাতে থাকে। ২০০৯-এ বি জে পি ১৮.৮৪% জনসমর্থন নিয়ে কোনমতে জাতীয় রাজনীতিতে প্রধান বিরোধী দলের ভূমিকা ধরে রাখতে সক্ষম হয়। ২০০৯-এ লক্ষণীয় বিষয় দুটি। এক, ২০০৯-এ কোনও সরকারবিরোধী হাওয়া ছিল না। অন্যদিকে বামপন্থীরা যেমন এই সময় জোট সঙ্গী ছিল ঠিক তেমনি সামাজিক আন্দোলনকারী এবং নাগরিক গোষ্ঠী কে এন এ সি-র মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়া হয়। দুই, এই সময় এন আর ই জি এ, আদিবাসী ও তফসিল জাতির জন্য জঙ্গলের জমিতে অধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা আইন, স্কুলে মিড ডে মিল প্রকল্প, গ্রামীণ বৈদ্যুতিকীকরণ প্রকল্প, তথ্য জানার অধিকার আইন এবং সীমাবদ্ধ আর্থিক উদারীকরণের মাধ্যমে ইউ পি এ-১ মোটামুটিভাবে নিজেদেরকে জনহিতকারী, উন্নয়নকামী হিসাবে তুলে ধরতে সক্ষম হয়। এটা বাস্তব এই সময় ইউ পি এ-১-র পরিকল্পনা এবং উন্নয়ন কর্মসূচীর একটা বড় অংশ নির্ধারিত হয়েছে বামপন্থীদের প্রস্তাবিত অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচী এবং এন এ সি সহযোগিতার পটভূমিতে। ২০০৯-র পরবর্তী সময়ে বামপন্থীদের সমর্থন ছাড়া এবং ছেঁটে ফেলা এন এ সি-২ নিয়ে গড়ে ওঠা ইউ পি এ-২ সরকার, লাগামছাড়া আর্থিক উদারীকরণ, মূল্যবৃদ্ধি, দুর্নীতিসহ একাধিক বিষয়ে বারবার মুখ থুবড়ে পড়ে। প্রাকৃতিক গ্যাস, খনিজ সম্পদ, কয়লা, জমি, বনভূমির বেসরকারীকরণসহ টু জি কেলেঙ্কারি, আদর্শ আবাসন কেলেঙ্কারি, সি ডব্লিউ জি কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ায় প্রথম সারির নেতাদের। তার সাথে রাহুল গান্ধীসহ কংগ্রেসের উচ্চ নেতৃত্বের চরম ব্যর্থতা এবং আর্থিক উদারীকরণের প্রতি অন্ধ আনুগত্যের কারণে আসন্ন লোকসভা নির্বাচন যে তীব্র কংগ্রেসবিরোধী হাওয়াতে হতে চলেছে তা সদ্য সমাপ্ত বিধানসভার ফলাফল থেকে একপ্রকার নিশ্চিত। হিন্দুত্বের হাত ধরে বি জে পি-র রাজনৈতিক উত্থান ৯০-র দশকের শুরুতে। মূলত উত্তর ও পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে ক্রমশ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ১৯৯৯-এ এন ডি এ জোট কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন হয়। লক্ষণীয় বিষয় মূলত ধনী ও উচ্চমধ্যবিত্তদের মধ্যে বিপুল জনসমর্থন আদায় করে বি জে পি। অন্যদিকে গরিব এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মধ্যে বি জে পি-র সমর্থন আদায় না করতে পারাটাও অর্থবহ। ১৯৯৬-১৯৯৯ সময়কালে ধনী ও উচ্চ মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মধ্যে বি জে পি-র সমর্থন ছিল যথাক্রমে ৩৬-৩৮% এবং ২৮-২৯%। অন্যদিকে ১৯৯৬ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত গরিব এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মধ্যে বি জে পি-র সমর্থন ছিল যথাক্রমে ১৬-১৭% এবং ২০-২১%। কিন্তু ২০০৪-এ তাঁদের জনসমর্থনের ভিত্তি অর্থাৎ ধনী ও উচ্চ মধ্যবিত্ত শ্রেণী তাঁদের কাছ থেকে অনেকটাই সরে যায়। ধনী শ্রেণীর জনসমর্থন ১৩% কমে দাঁড়ায় ২৫% ও উচ্চমধ্যবিত্ত শ্রেণীর জনসমর্থন ৭% কমে দাঁড়ায় ২২%। আর ঠিক এই জনসমর্থন ফিরিয়ে আনার জন্যই এই সময় বি জে পি-র সেরা বাজি নরেন্দ্র মোদী আর তাঁর গুজরাট মডেলের ফানুস। বাস্তবিক অর্থেই গুজরাটের উন্নয়ন গল্পের গোরু আজকাল দেখছি গাছে উঠেছে। একটু পরিসংখ্যান ঘেঁটে দেখলেই বোঝা যাবে বাস্তব অবস্থাটা কি। গুজরাটের আর্থিক উন্নয়ন হার (১০.১%) জাতীয় গড়ের (৮.৩%) থেকে অল্প বেশি হলেও তামিলনাডু (১০.৩%), মহারাষ্ট্র (১০.৮%) এমনকি নীতীশ কুমারের বিহারের (১১.৪%) থেকেও অনেক কম। ২০০০ থেকে ২০১১ পর্যন্ত গুজরাটে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ হয়েছে ৭.২ বিলিয়ন ডলার এই একই সময় মহারাষ্ট্র ও দিল্লিতে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ হয়েছে যথাক্রমে ৪৫.৮ বিলিয়ন ডলার। ও ২৬ বিলিয়ন ডলার। মানব উন্নয়ন সূচকে গুজরাটের অবস্থা ভয়ঙ্কর। ২০০৮-র তথ্য অনুসারে ০.৫২৭ সহ বড় রাজ্যগুলির মধ্যে দশম স্থানে রয়েছে গুজরাট। কেরালা প্রথম (০.৭৯২) এমনকি হিমাচল প্রদেশ (০.৬৫২), পাঞ্জাব (০.৬০৫), মহারাষ্ট্র (০.৫৭২), হরিয়ানা (০.৫৫২) সবাই গুজরাটের থেকে ভালো জায়গায়। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের দেওয়া ২০১৩-র হিসাব অনুযায়ী মাথাপিছু ঋণের শীর্ষে রয়েছে মোদীর গুজরাট (২৯২২০ টাকা)। সাক্ষরতাতে গুজরাট (৭৯.৩%) রাজ্যগুলির মধ্যে রয়েছে ১৮তম স্থানে। জনগণনা ২০০১ গুজরাটে প্রতি হাজার পুরুষের তুলনায় মহিলা সংখ্যা ছিল ৯২০। ২০১১-তে এটা কমে দাঁড়িয়েছে ৯১৮-তে। যেখানে জাতীয় গড় ২০০১ (৯৩৩) থেকে ২০১১-তে বেড়ে হয়েছে ৯৪০। এন এস এস-ও রিপোর্ট অনুসারে গুজরাটে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির হার গত ১২ বছরে প্রায় শূন্যতে এসে ঠেকেছে। এটা বাস্তব যে গুজরাটে বিদ্যুৎ উদ্বৃত্ত থাকে। কিন্তু তা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছায় না। এখানেও গুজরাটের স্থান রাজ্যগুলির মধ্যে ১৬তম। ২০১২-১৩-র প্ল্যানিং কমিশনের রিপোর্ট অনুসারে গুজরাটে দারিদ্র্যসীমার নিচে থাকে প্রায় ২৩% মানুষ যা অন্ধ্র, হরিয়ানা, কেরালা, ত্রিপুরা, হিমাচল প্রদেশ থেকে অনেক বেশি। এমনকি বিশ্ব ক্ষুধার সূচকে গুজরাট ১৯৯৪ সালে যেখানে ছিল দশম স্থানে মোদীর উন্নয়নের চোটে তাঁরা আরও নেমে এখন ১৩তম। আর আমুল, আম্বানি, আদানি, নিরমা, টরেন্ট, জাইদাস, ক্যাদিলা, আই পি সি এল, জি এস এফ সি, জি এন এফ সি এমনকি রাজকোটের মেশিন শিল্প বা ডিজেল ইঞ্জিন শিল্প, সুরাটের ও ভাবনগরের হীরা প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র — এসবই মোদী মুখ্যমন্ত্রী হবার আগেই গুজরাটে ছিল। তাই উন্নয়নের স্বার্থে মোদী নাকি? কখনই না। আসলে আর এস এস চায় তাঁদের অনুগত মোদী এবং তীব্র কংগ্রেসবিরোধী হাওয়াকে কাজে লাগিয়ে তাঁদের ধর্মীয় ফ্যাসিবাদী কার্যাবলীর প্রসার। অন্যদিকে রয়েছে মুনাফালোভী বেসরকারী এবং কর্পোরেট হাউসগুলি এবং অবশ্যই গোল্ডম্যান স্যাচ, সি এল সি এ, নমুরার মতো বিদেশী পুঁজিপতি পরিবারগুলির চক্র। কংগ্রেসকে সরিয়ে মোদীকে ক্ষমতাসীন করার অর্থ আরও বেশি দুর্নীতি, আরও বেশি আর্থিক উদারীকরণ, গণতন্ত্রের উপর আরও প্রবল আক্রমণ এমনকি ব্যক্তিগত জীবনে অবৈধ নজরদারি এবং নকল এনকাউন্টার। সংবিধান নয় মোদী অনুগত অমিত শাহ-র আদেশপত্রে চলা দেশ তখন সাম্প্রদায়িকতার ‘রাম রাজ্য’ হয়ে উঠবে। কংগ্রেস বি জে পি-র সরাস‍‌রি লড়াই হবে ২১০টি লোকসভা আসনে বাকি ৩৩৩ লোকসভা আসনে হয় বি জে পি রাজনৈতিকভাবে অস্তিত্বহীন বা লড়তে হবে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলির সাথে। তাই বি জে পি-র কাছে জোটসঙ্গী খোঁজা আর তথাকথিত মোদী ঝড়কে ভোটে বদলানোই বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ দিল্লিতে শক্তিশালী সংগঠন থাকা সত্ত্বেও মোদীর প্রচার করে যাওয়া ৬টি বিধানসভা কেন্দ্রের ৪টিতেই হেরেছে ‍‌বি জে পি। বি জে পি এখন বুঝছে যা চকচক করে তাই সোনা হয় না। দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্না হাজারের আন্দোলন চরিত্রগত দিক থেকে ১৯৭৩-র গুজরাটের নব নির্মাণ আন্দোলন, ১৯৭৪-র বিহারের জে পি আন্দোলন বা ভি পি সিং-র বোফর্স সংক্রান্ত আন্দোলনের থেকে আলাদা ছিল। কারণ এখানে যেমন ক্ষমতাসীন সরকারের পদত্যাগ দাবি করা হয়নি কেবলমাত্র শক্তিশালী আইন প্রণয়নে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছিল। আবার আন্দোলনের পটভূমিতেই আপের দিল্লির বুকে রাজনৈতিক উত্থানও ঘটেছে। সি এস ডি এ-র একটি সমীক্ষা বলছে ভোটাধিকার রয়েছে জনগণের এরকম একটি বড় অংশ জাতীয় স্তরে বিভিন্ন বিষয়ে নীতি নির্ধারণের ক্ষেত্রে উদার, সামাজিক, গণতান্ত্রিক অভিমুখ যেমন চাইছে তেমনি আর্থিক ও বিদেশনীতির ক্ষেত্রে মৌলিক পরিবর্তনের পক্ষে। শাসকের চরিত্র বদলে এঁরা বেশি আগ্রহী। এটা বাস্তব আপ-সহ বিভিন্ন আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলি তাঁদের নিজেদের রাজ্যে বৃহত্তর অংশের আশু ও আদায়যোগ্য সমস্যাকে তুলে ধরেছে। কিন্তু জাতীয় রাজনীতিতে নিজেদের প্রাসঙ্গিক করে তুলতে সামাজিক সুরক্ষা, সাম্প্রদায়িকতা, আর্থিক এবং বৈদেশিক নীতি সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেনি। ইউ পি এ-১ এবং ইউ পি এ-২ সরকারের কাজের পার্থক্যের অন্যতম কারণ সরকার পরিচালনাতে বামপন্থীদের ভূমিকা। এন আর ই জি এ, আর টি আই, আদিবাসী ও তফসিল জাতির জন্য জঙ্গলের জমিতে অধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা আইন, স্কুলে মিড ডে মিল প্রকল্প এবং সীমাবদ্ধ আর্থিক উদারীকরণসহ একাধিক জনদরদী প্রকল্প ও সিদ্ধান্ত বামপন্থীদের দীর্ঘ লড়াই সংগ্রামের ফল। কিন্তু পারমাণবিক চুক্তির মতো সাম্রাজ্যবাদী আগ্রাসনের সাথে তাঁরা নীতিগত কারণেই আপস করেনি। ক্ষমতা দখলের লড়াই না, বামপন্থা মানে নীতি নিষ্ঠতা, মানুষের প্রতি দায়বদ্ধতা। এই সত্যই প্রমাণ করেছেন তাঁরা। পরিবর্তনের আড়াই বছরের মাথায় বাংলার মানুষ কঠিন অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। বাম সুশাসনের অভাব অনুভব হচ্ছে সামগ্রিকভাবে। অন্যদিকে ত্রিপুরাতে মানুষ বিপুল ভোট দিয়ে বামপন্থীদের ক্ষমতায় ফিরিয়ে এনেছেন। কেরালাতেও বামপন্থীরা মানুষকে পাশে নিয়ে ধারাবাহিক লড়াই সংগ্রামের মধ্যে রয়েছেন। অন্ধ্র প্রদেশ, তামিলনাডু, হিমাচলেও বামপন্থীদের সংগঠন আগের থেকে বেশি শক্তিশালী। রাজস্থানে বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের বিপুল জয় অবশ্যই আশাব্যঞ্জক। ২০০৯-র লোকসভা নির্বাচনে বামপন্থীরা দুর্বল হওয়ার পর থেকে যে সমস্যাগুলি দেশে নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে সেগুলি মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়ে গণআন্দোলন গড়ে সংগঠন শক্তিশালী করা তাই বামেদের কাছেও এখন বড় চ্যালেঞ্জ। বামপন্থীরা যেমন দেশে নীতি ও শৃঙ্খলার উজ্জ্বল প্রতীক ঠিক সেইরকমভাবে তাঁদের বিকল্প নীতি তুলে ধরার ক্ষেত্রে উদ্যোগী হতে হবে। সময়ের সঙ্গে নিজেদের রাজনৈতিক প্রচার কায়দা, আন্দোলনের পদ্ধতি, জনসংযোগ বাড়ানোর ক্ষেত্রে অভিনবত্ব আনা দরকার কি না ভেবে দেখতে হবে। দেশের মানুষের কাছে একদিকে যেমন রয়েছে সাম্প্রদায়িক দৈত্য অন্যদিকে দুর্নীতিগ্রস্ত, উদার অর্থনীতির প্রবক্তারা। ঐ যে কথায় বলে না জলে কুমির ডাঙায় বাঘ। দুই অশুভ শক্তির সামনে সাধারণ মানুষের অবস্থা ঠিক সেইরকম। বামপন্থীদের উপলব্ধি করতে হবে শুধুমাত্র আদর্শগত সূক্ষ্ম প্রশ্ন থেকে বেরিয়ে এসে দেশের মানুষকে বিকল্প নীতির স্বাদ দেওয়ার সময় হয়েছে। দেশের মানুষের স্বার্থেই ‘বৃহত্তর বাম’ ঐক্য গড়ে তোলা দরকার কি না সে বিষয়েও সর্বস্তরে আলোচনার দরকার। বিকল্প জোট গড়ে উঠতে পারে একমাত্র বিকল্প নীতি থেকেই। আর তাই শাসকের নীতির পরিবর্তনের জন্য সংগ্রামের কোনও বিকল্প নেই। আর বিকল্প নীতির প্রয়োজনে, কেন্দ্রে স্থিতিশীল ধর্মনিরপেক্ষ সরকার গড়ার লক্ষ্যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে, জাতীয় রাজনীতিতে বামপন্থীদের শক্তি বৃদ্ধিই আশু লক্ষ্য হওয়া উচিত। - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52633#sthash.pW6psFsx.dpuf

Ganashakti



পেইড সমীক্ষা: এতদিন জানা ছিল ‘পেইড নিউজ’-র কথা। সংবাদপত্র বা চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে অথবা সংশ্লিষ্ট সাংবাদিককে টাকা দিয়ে পছন্দমত সংবাদ তৈরি করা। কোনো রাজনৈতিক দল, লোকসভা বা বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী নিজের পক্ষে প্রচার চালানোর জন্য সংবাদমাধ্যম কর্তৃপক্ষ বা সাংবাদিকদের টাকা দিয়ে থাকেন। এইভাবে অর্থ দিয়ে বা টাকার বিনিময়ে নিজেদের পক্ষে সংবাদ প‍‌রিবেশন করানো হয়। এটাই ‘পেইড নিউজ’। সাধারণ মানুষ তথা ভোটারদের প্রভাবিত করার জন্যই এই অসততার আশ্রয় নেওয়া হয়। অতীতে এই ধরনের রাজনৈতিক অসততা বিশেষ দেখা না গেলেও ইদানীং বিশেষ করে উদারনীতির জমানায় এর ভূরি ভূরি নজির পাওয়া যাচ্ছে। উদারনীতি অর্থের কাছে নৈতিকতাকে পরাজয়ের আবহ তৈরি করতে থাকায় সর্বস্তরে দুর্নীতি-কেলেঙ্কারি যেমন বাড়ছে তেমনি দক্ষিণপন্থী রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে নৈতিকতার অধঃপতন ঘটছে। তাই প্রার্থী হবার জন্য অর্থ ব্যয়ে অনেকে কার্পণ্য করে না। ফলে যত দিন যাচ্ছে ততই সাংসদ-বিধায়কদের মধ্যে বিত্তবানদের ভিড় বাড়ছে। প্রার্থী হবার বা সাংসদ-বিধায়ক হবার অন্যতম প্রধান মাপকাঠি হয়ে দাঁড়াচ্ছে আর্থিক ক্ষমতা। নির্বাচিত হলে নিজেদের ব্যবসা-বাণিজ্য ও রোজগার বাড়ানোর অঢেল সুযোগ। তাই জেতার জন্য অন্যসব অশুভ কাজের সঙ্গে টাকা দিয়ে সংবাদমাধ্যমে নিজের পক্ষে প্রচার চালানো হয়। ‘পেইড নিউজ’-র পর্বের পর এখন আবির্ভাব ঘটে ‘পেইড ওপিনিয়ন পোল’ অর্থাৎ অর্থ দিয়ে জনমত সমীক্ষা। সাম্প্রতিককালে রাজ্য বিধানসভা এবং লোকসভা নির্বাচনের আগে দফায় দফায় বিভিন্ন সংবাদপত্র এবং চ্যানেলে জনমত সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। তাতে কোন্‌ দল কত আসন পাবার সম্ভাবনা তা দেখানো হয়। এই সমীক্ষা করার জন্য দেশে বেশ কয়েকটি সমীক্ষক সংস্থা আছে। ইদানীং জনমত সমীক্ষা এক‍‌টি লাভজনক ব্যবস্থায় পরিণত হয়েছে। এই ধরনের সমীক্ষার বৈজ্ঞানিক কোনো ভিত্তি না থাকায় এর বিশ্বাসযোগ্যতা বলেও কিছু থাকে না। তাই এই সমীক্ষা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিতর্ক চলছে। মোট ভোটারের মধ্যে অতি নগণ্য সংখ্যক কয়েকজনের মতামত নিয়ে এই সমীক্ষা চালানো হয়। ফলে এই রায় অর্থহীন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই সমীক্ষা বাস্তবের সঙ্গে মেলে না। দু’একটি ক্ষেত্রে মিলে গেলেও সেটা নিছকই দুর্ঘটনা বা কাকতালীয়। তাই একে জনমত সমীক্ষা না বলে জ্যোতিষ চর্চা বা ভবিষ্যদ্বাণী বলাই শ্রেয়। সংবাদমাধ্যমে এসব এমনভাবে ফলাও করে প্রচার হয় যাতে মানুষ প্রভাবিত হয়। বিশেষ করে সেইসব মানুষ যা কোনো দলেরই সমর্থক নন তারা এইসব সমীক্ষায় বেশি করে প্রভাবিত হয়। তেমনি সমীক্ষা যে দলের পক্ষে যায় সেই দলের কর্মীরা চাঙ্গা হয়। আর যাদের বিরুদ্ধে যায় তাদের মধ্যে উদ্দীপনা কমার প্রবণতা থাকে। এখন দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল অর্থ দিয়ে সমীক্ষা রিপোর্ট নিজেদের অনুকূলে নিয়ে আসে। একটি বেসরকারী সংবাদ চ্যানেলের স্টিং অপারেশনে ধরা পড়েছে সমীক্ষক সংস্থাগুলিকে টাকা দিলে রিপোর্ট বদলে দেওয়া যায়। এমনটা যে হয় অনেকদিন থেকে আন্দাজ করা যাচ্ছিল। কিন্তু তেমন কোনো প্রমাণ হাতে ছিল না। এবার প্রমাণ হয়ে গেছে জনমত সমীক্ষার আসল রহস্য। এই অবস্থায় জনমত সমীক্ষা পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া উচিত। অথবা সমীক্ষা হলেও ভোটের আগে তার ফল প্রকাশ নিষিদ্ধ করা দরকার। বামপন্থীরা ছাড়াও দেশের বেশিরভাগ দল এখন জনমত সমীক্ষার বিরুদ্ধে। একমাত্র বি জে পি এর পক্ষে। বি জে পি-র বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তারা বিপুল টাকা খরচ করে নিজেদের অনুকূলে রিপোর্ট তৈরি করাচ্ছে।

Ganashakti



পেইড সমীক্ষা: এতদিন জানা ছিল ‘পেইড নিউজ’-র কথা। সংবাদপত্র বা চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে অথবা সংশ্লিষ্ট সাংবাদিককে টাকা দিয়ে পছন্দমত সংবাদ তৈরি করা। কোনো রাজনৈতিক দল, লোকসভা বা বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী নিজের পক্ষে প্রচার চালানোর জন্য সংবাদমাধ্যম কর্তৃপক্ষ বা সাংবাদিকদের টাকা দিয়ে থাকেন। এইভাবে অর্থ দিয়ে বা টাকার বিনিময়ে নিজেদের পক্ষে সংবাদ প‍‌রিবেশন করানো হয়। এটাই ‘পেইড নিউজ’। সাধারণ মানুষ তথা ভোটারদের প্রভাবিত করার জন্যই এই অসততার আশ্রয় নেওয়া হয়। অতীতে এই ধরনের রাজনৈতিক অসততা বিশেষ দেখা না গেলেও ইদানীং বিশেষ করে উদারনীতির জমানায় এর ভূরি ভূরি নজির পাওয়া যাচ্ছে। উদারনীতি অর্থের কাছে নৈতিকতাকে পরাজয়ের আবহ তৈরি করতে থাকায় সর্বস্তরে দুর্নীতি-কেলেঙ্কারি যেমন বাড়ছে তেমনি দক্ষিণপন্থী রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে নৈতিকতার অধঃপতন ঘটছে। তাই প্রার্থী হবার জন্য অর্থ ব্যয়ে অনেকে কার্পণ্য করে না। ফলে যত দিন যাচ্ছে ততই সাংসদ-বিধায়কদের মধ্যে বিত্তবানদের ভিড় বাড়ছে। প্রার্থী হবার বা সাংসদ-বিধায়ক হবার অন্যতম প্রধান মাপকাঠি হয়ে দাঁড়াচ্ছে আর্থিক ক্ষমতা। নির্বাচিত হলে নিজেদের ব্যবসা-বাণিজ্য ও রোজগার বাড়ানোর অঢেল সুযোগ। তাই জেতার জন্য অন্যসব অশুভ কাজের সঙ্গে টাকা দিয়ে সংবাদমাধ্যমে নিজের পক্ষে প্রচার চালানো হয়। ‘পেইড নিউজ’-র পর্বের পর এখন আবির্ভাব ঘটে ‘পেইড ওপিনিয়ন পোল’ অর্থাৎ অর্থ দিয়ে জনমত সমীক্ষা। সাম্প্রতিককালে রাজ্য বিধানসভা এবং লোকসভা নির্বাচনের আগে দফায় দফায় বিভিন্ন সংবাদপত্র এবং চ্যানেলে জনমত সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। তাতে কোন্‌ দল কত আসন পাবার সম্ভাবনা তা দেখানো হয়। এই সমীক্ষা করার জন্য দেশে বেশ কয়েকটি সমীক্ষক সংস্থা আছে। ইদানীং জনমত সমীক্ষা এক‍‌টি লাভজনক ব্যবস্থায় পরিণত হয়েছে। এই ধরনের সমীক্ষার বৈজ্ঞানিক কোনো ভিত্তি না থাকায় এর বিশ্বাসযোগ্যতা বলেও কিছু থাকে না। তাই এই সমীক্ষা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিতর্ক চলছে। মোট ভোটারের মধ্যে অতি নগণ্য সংখ্যক কয়েকজনের মতামত নিয়ে এই সমীক্ষা চালানো হয়। ফলে এই রায় অর্থহীন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই সমীক্ষা বাস্তবের সঙ্গে মেলে না। দু’একটি ক্ষেত্রে মিলে গেলেও সেটা নিছকই দুর্ঘটনা বা কাকতালীয়। তাই একে জনমত সমীক্ষা না বলে জ্যোতিষ চর্চা বা ভবিষ্যদ্বাণী বলাই শ্রেয়। সংবাদমাধ্যমে এসব এমনভাবে ফলাও করে প্রচার হয় যাতে মানুষ প্রভাবিত হয়। বিশেষ করে সেইসব মানুষ যা কোনো দলেরই সমর্থক নন তারা এইসব সমীক্ষায় বেশি করে প্রভাবিত হয়। তেমনি সমীক্ষা যে দলের পক্ষে যায় সেই দলের কর্মীরা চাঙ্গা হয়। আর যাদের বিরুদ্ধে যায় তাদের মধ্যে উদ্দীপনা কমার প্রবণতা থাকে। এখন দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল অর্থ দিয়ে সমীক্ষা রিপোর্ট নিজেদের অনুকূলে নিয়ে আসে। একটি বেসরকারী সংবাদ চ্যানেলের স্টিং অপারেশনে ধরা পড়েছে সমীক্ষক সংস্থাগুলিকে টাকা দিলে রিপোর্ট বদলে দেওয়া যায়। এমনটা যে হয় অনেকদিন থেকে আন্দাজ করা যাচ্ছিল। কিন্তু তেমন কোনো প্রমাণ হাতে ছিল না। এবার প্রমাণ হয়ে গেছে জনমত সমীক্ষার আসল রহস্য। এই অবস্থায় জনমত সমীক্ষা পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া উচিত। অথবা সমীক্ষা হলেও ভোটের আগে তার ফল প্রকাশ নিষিদ্ধ করা দরকার। বামপন্থীরা ছাড়াও দেশের বেশিরভাগ দল এখন জনমত সমীক্ষার বিরুদ্ধে। একমাত্র বি জে পি এর পক্ষে। বি জে পি-র বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তারা বিপুল টাকা খরচ করে নিজেদের অনুকূলে রিপোর্ট তৈরি করাচ্ছে।

Ganashakti



আক্রান্ত অধ্যাপক

Ganashakti



মহাকাশ গবেষণায় নতুন মোড় নাসার টেলিস্কোপে ধরা পড়লো ৭১৫টি নতুন গ্রহ - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52652#sthash.Lx6rznQK.dpuf

Ganashakti



জি এম ফসল চাষে সায় কেন্দ্রের

Ganashakti



বিকল্পে যোগ দেবে আরো আঞ্চলিক দল

Ganashakti



২১শে জুলাইয়ের ঘটনার প্রশাসনিক রিপোর্ট হারায় কীভাবে, উঠছে প্রশ্ন

Ganashakti



২১শে জুলাইয়ের ঘটনার প্রশাসনিক রিপোর্ট হারায় কীভাবে, উঠছে প্রশ্ন

Ganashakti



রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারে ভরতুকি দিচ্ছে না রাজ্য, মিড ডে মিল দিতে নাস্তানাবুদ স্কুলগুলি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1545#sthash.uhkV3NKh.dpuf

Ganashakti



রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারে ভরতুকি দিচ্ছে না রাজ্য, মিড ডে মিল দিতে নাস্তানাবুদ স্কুলগুলি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1545#sthash.uhkV3NKh.dpuf

Ganashakti



রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারে ভরতুকি দিচ্ছে না রাজ্য, মিড ডে মিল দিতে নাস্তানাবুদ স্কুলগুলি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1545#sthash.uhkV3NKh.dpuf

Ganashakti



রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারে ভরতুকি দিচ্ছে না রাজ্য, মিড ডে মিল দিতে নাস্তানাবুদ স্কুলগুলি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1545#sthash.uhkV3NKh.dpuf

Ganashakti



বি ডি ও-দের লিখিত রিপোর্টে ধরাশায়ী সাফল্যের বিজ্ঞাপন

Ganashakti



দেউলিয়া রাজ্য ভোটের মুখে ফের টাকা দেবে ক্লাবগুলিকে - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1544#sthash.oXpWwVgm.dpuf

Ganashakti



দেউলিয়া রাজ্য ভোটের মুখে ফের টাকা দেবে ক্লাবগুলিকে - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1544#sthash.oXpWwVgm.dpuf

Ganashakti



Thursday, February 27, 2014

Saradha Group donated heavily to Trinamool govt, bought Mamata's art - Indian Express

Saradha Group donated heavily to Trinamool govt, bought Mamata's art - Indian Express



Saradha Group donated heavily to Trinamool govt, bought Mamata's art - Indian Express

Saradha Group donated heavily to Trinamool govt, bought Mamata's art - Indian Express



ফের শ্লীলতাহানির ঘটনা মধ্যমগ্রামে

madhyamgram mollest



কেশপুরের পর এবার ঘাটালে আক্রান্ত সিপিআইএম-এর মহিলা সমিতির সদস্যরা

কেশপুরের পর এবার ঘাটালে আক্রান্ত সিপিআইএম-এর মহিলা সমিতির সদস্যরা



দল বিরোধী কাজের জন্য রেজ্জাক মোল্লাকে বহিষ্কার করল সিপিআইএম

Rejjak Mollah



দল বিরোধী কাজের জন্য রেজ্জাক মোল্লাকে বহিষ্কার করল সিপিআইএম

Rejjak Mollah



সারদা কাণ্ডের তদন্ত ভার কি সিবিআইয়ের হাতে? নজর টাইম লাইনে

Saradha scam time line



সারদা কাণ্ডের তদন্ত ভার কি সিবিআইয়ের হাতে? নজর টাইম লাইনে

Saradha scam time line



রাজ্যে নারী নির্যাতন রুখতে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির হস্তক্ষেপ চাইলেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন

রাজ্যে নারী নির্যাতন রুখতে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির হস্তক্ষেপ চাইলেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন



Didi doesn’t have time for House: Of 124 days, she marked present only on 28 | The Indian Express

Didi doesn’t have time for House: Of 124 days, she marked present only on 28 | The Indian Express



CPI(M) confident that more regional parties would come together | The Indian Express

CPI(M) confident that more regional parties would come together | The Indian Express



‘Modi-Mamata brother-sister, help minorities only in theory’ | The Indian Express

‘Modi-Mamata brother-sister, help minorities only in theory’ | The Indian Express



Buddhadeb Bhattacharjee defends 1993 firing on Youth cong supporters | The Indian Express

Buddhadeb Bhattacharjee defends 1993 firing on Youth cong supporters | The Indian Express



More parties will join Third Front: CPI (M) - The Hindu

More parties will join Third Front: CPI (M) - The Hindu



CPI(M) expels Molla - The Hindu

CPI(M) expels Molla - The Hindu



ERALA RAKSHA MARCH CULMINATES WITH MASSIVE RALLY

Ganasakti



MENTALLY CHALLENGED MINOR GIRL GANG-RAPED IN KOLKATA

Ganasakti



JANGALMAHAL NOT GETTING CM’S RS2/KG RICE; RICE COLLECTION AT 0.6% OF TARGET

Ganasakti



WORKERS ACROSS THE STATE PROTEST AGAINST THE FASCIST PRONOUNCEMENT OF MAMATA

Ganasakti



The Enforcement Directorate (ED) has attached the properties of Saradha Group of companies in West Bengal and Odisha worth Rs 35.4 crore

Ganasakti



CPI(M) MLA ABDUR REZZAK MOLLAH EXPELLED FROM PARTY

Ganasakti



SK THE GOVT TO SUBMIT THE ADMINISTRATIVE REPORT: BUDDHADEB TO COMMISSION

Ganasakti



সারদা নিয়ে সি বি আই তদন্তে মুখ্যমন্ত্রীর ভয় কেন? : হালদার - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52576#sthash.96VqDgqS.dpuf

Ganashakti



সারদা নিয়ে সি বি আই তদন্তে মুখ্যমন্ত্রীর ভয় কেন? : হালদার - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52576#sthash.96VqDgqS.dpuf

Ganashakti



হাইকোর্ট থেকে উধাও নন্দীগ্রাম মামলার ফাইল

Ganashakti



হাইকোর্ট থেকে উধাও নন্দীগ্রাম মামলার ফাইল

Ganashakti



সারদার ক্ষতিপূরণের চেকে দেদার নাম বিভ্রাট

Ganashakti



সারদার ক্ষতিপূরণের চেকে দেদার নাম বিভ্রাট

Ganashakti



কেশপুরে সি পি আই (এম) জোনাল দপ্তরে তৃণমূলের হামলা, বোমা, গুলি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52608#sthash.sN8wLvdM.dpuf

Ganashakti



কেশপুরে সি পি আই (এম) জোনাল দপ্তরে তৃণমূলের হামলা, বোমা, গুলি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52608#sthash.sN8wLvdM.dpuf

Ganashakti



কমিশনে সাক্ষ্যে বললেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ২১শে জুলাইয়ের ঘটনার প্রশাসনিক রিপোর্ট জমা দিতে বলুন সরকারকে - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52591#sthash.ddzhLULV.dpuf

Ganashakti



কমিশনে সাক্ষ্যে বললেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ২১শে জুলাইয়ের ঘটনার প্রশাসনিক রিপোর্ট জমা দিতে বলুন সরকারকে - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52591#sthash.ddzhLULV.dpuf

Ganashakti



ছিটমহলবাসীর জীবন যন্ত্রণার অবসান হোক

Ganashakti



ধীরেন্দ্রনাথ বাস্কে : আদিবাসী সমাজের এক বিদগ্ধ ব্যক্তিত্ব - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52584#sthash.EuMi2Jxn.dpuf

Ganashakti



আগামী লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে কংগ্রেস এবং বি জে ‍‌পি-র বিপরীতে বিকল্প শক্তি ধাপে ধাপে আত্মপ্রকাশ করছে। এই শক্তি নেতা নয় নীতিকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে চায়। আপাতত ১১টি ধর্মনিরপেক্ষ এবং গণতান্ত্রিক দল এক জায়গায় মিলিত হয়ে এই বিকল্প শক্তির প্রাথমিক চেহারা দিয়েছে। ১১ দলের নেতারা আশাবাদী আরও কয়েকটি দল পর্যায়ক্রমে এই বিকল্প শক্তির সঙ্গে যুক্ত হবে। - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52582#sthash.BNxxvcvj.dpuf

Ganashakti



ভাঙড়ে তৃণমূল কর্মাধ্যক্ষ খুনে দলেরই দুই নেতা-সহ ধৃত ৪

আনন্দবাজার পত্রিকা - দক্ষিণবঙ্গ



গুলি না চালিয়ে উপায় ছিল না সে দিন

আনন্দবাজার পত্রিকা - রাজ্য



হাইকোর্ট থেকে নন্দীগ্রাম কাণ্ডের সব নথি গায়েব

আনন্দবাজার পত্রিকা - রাজ্য

হাইকোর্ট থেকে নন্দীগ্রাম কাণ্ডের সব নথি গায়েব

আনন্দবাজার পত্রিকা - রাজ্য

হাইকোর্ট থেকে নন্দীগ্রাম কাণ্ডের সব নথি গায়েব

আনন্দবাজার পত্রিকা - রাজ্য

Wednesday, February 26, 2014

তৃণমূলের চিকিৎসক সংগঠনের নির্দেশের নিন্দায় চিকিৎসকরা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52542#sthash.QaMm1sGG.dpuf

Ganashakti



‘নিঃসঙ্গ’ মমতাকে ‘ফেডারেল ফ্রন্ট’ নিয়ে টিপ্পনী সোমেনের

Ganashakti



পোলবায় বিধায়কের বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ

আনন্দবাজার পত্রিকা - দক্ষিণবঙ্গ



পোলবায় বিধায়কের বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ

আনন্দবাজার পত্রিকা - দক্ষিণবঙ্গ



এগারো দলের যৌথ ঘোষণাপত্র

Ganashakti



সারদায় সি বি আই তদন্তের বিরোধিতা কেন, রাজ্যকে প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52570#sthash.3AsjrCop.dpuf

Ganashakti



গরিবের চাল সংগ্রহ ০.৬%, রেশনে হাহাকারের আশঙ্কা রাজ্যে

Ganashakti



যৌথ ঘোষণাপত্রে বিকল্পের কথা বললো ১১দল

Ganashakti



যৌথ ঘোষণাপত্রে বিকল্পের কথা বললো ১১দল

Ganashakti



সারদার টাকা কোথায় গেল, রাজ্যকে প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের

আনন্দবাজার পত্রিকা - রাজ্য



Eye on 2014 and allies,Left unveils ‘alternative policies’ | The Indian Express

Eye on 2014 and allies,Left unveils ‘alternative policies’ | The Indian Express



‘Modi represents forces that brought down Babri Masjid’ - Prakash Karat | The Indian Express

‘Modi represents forces that brought down Babri Masjid’ | The Indian Express

‘Modi represents forces that brought down Babri Masjid’ - Prakash Karat | The Indian Express

‘Modi represents forces that brought down Babri Masjid’ | The Indian Express

CPM looking to stitch a national alternative: Karat | The Indian Express

CPM looking to stitch a national alternative: Karat | The Indian Express



‘No friends or enemies,we look at a govt’s policies’ | The Indian Express

‘No friends or enemies,we look at a govt’s policies’ | The Indian Express



‘If Anna could get Mamata to order CBI probe into chit scam…’ | The Indian Express

‘If Anna could get Mamata to order CBI probe into chit scam…’ | The Indian Express



আগরতলায় দেদার মিথ্যা বললেন মমতা

Ganashakti



Outsiders 'attack' rape survivor's kin - The Times of India

Outsiders 'attack' rape survivor's kin - The Times of India



Four more held for Chitpur gang rape - The Times of India

Four more held for Chitpur gang rape - The Times of India



Hospital staffer 'molested' in Kolkata - The Times of India

Hospital staffer 'molested' in Kolkata - The Times of India

Hospital staffer 'molested' in Kolkata - The Times of India

Hospital staffer 'molested' in Kolkata - The Times of India

Tuesday, February 25, 2014

তৃণমূলের চিকিৎসক সংগঠনের নিদান মমতাকে প্রধানমন্ত্রী করতে প্রচার চালাতে হবে অপারেশন থিয়েটারেও! - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52522#sthash.0AP36oMx.dpuf

Ganashakti



পিছনের দরজা

Ganashakti



বিধান রায় সিদ্ধার্থ রায় কিন্তু পারেননি....

Ganashakti



ঘোষণায় ছিলো না যা হয়েছে এক হাজার দিনে

Ganashakti



ঘোষণায় ছিলো না যা হয়েছে এক হাজার দিনে

Ganashakti



কাশীপুরে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার মানসিক প্রতিবন্ধী তরুণী - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52519#sthash.YZjNGVyp.dpuf

Ganashakti



রাজ্যজুড়ে ধিক্কারের ঢেউ তুলেই মুখ্যমন্ত্রীর হুমকির জবাব দিলেন কর্মীরা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52517#sthash.PqlUzV7H.dpuf

Ganashakti



অনশনরত চাকরিপ্রার্থীরা ‘মাওবাদী’!, মেরে তোলার হুমকি সচিবের দাবি মেনে নিতে শিক্ষামন্ত্রীকে ফোন বিরোধীনেতার, আজ যাচ্ছেন অবস্থানে - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52515#sthash.TRgEd1Nz.dpuf

Ganashakti



প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট



Monday, February 24, 2014

Will be kicked out of India, if Mamata became PM: Taslima Nasreen - News Oneindia

Will be kicked out of India, if Mamata became PM: Taslima Nasreen - News Oneindia



“ONLY A NON-CONG, NON-BJP GOVT CAN ENSURE INCLUSIVE GROWTH” - Sitaram Yechury

Listing Page



“ONLY A NON-CONG, NON-BJP GOVT CAN ENSURE INCLUSIVE GROWTH” - Sitaram Yechury

Listing Page



Only a non-Cong, non-BJP govt can ensure inclusive growth - Hindustan Times

Only a non-Cong, non-BJP govt can ensure inclusive growth - Hindustan Times



Mamta disrespects CBI's probe into chitfund scam | Business Standard

Mamta disrespects CBI's probe into chitfund scam | Business Standard



Mamta disrespects CBI's probe into chitfund scam | Business Standard

Mamta disrespects CBI's probe into chitfund scam | Business Standard



Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

Is Bengal the Ponzi capital of India? - Hindustan Times

NO FREEDOM FOR WRITING IN WEST BENGAL AND MAMATA'S RULE

আন্নার হাত ধরে দুর্নীতির কালি ঢাকতে চাইছেন মমতা বললেন সূর্যকান্ত মিশ্র - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52464#sthash.nvS3R3BD.dpuf

Ganashakti



শিক্ষকদের আয়কর কাটা হচ্ছে, কিন্তু জমা পড়ছে না

Ganashakti



সংশয়ের সমীক্ষাতেও স্পষ্ট বিকল্প শক্তির জোর, চেপে যাচ্ছে মোদী-মন্ত্রে দীক্ষিত মিডিয়া - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52463#sthash.Fupoy6aL.dpuf

Ganashakti



মুখ্যমন্ত্রীর হিংস্র হুমকির বিরুদ্ধে আজ রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ দেখাবেন সরকারী কর্মীরা

Ganashakti



দুষ্কৃতীদের অপরাধ করার লাইসেন্স দিয়েছে তৃণমূল সরকার

Ganashakti



ফাঁকা প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাজ্যকে অন্ধকারের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী,

Ganashakti



রায়না-খন্ডঘোষে সি পি আই (এম) দপ্তরে হামলার প্রতিবাদে রবিবার মৌন ধিক্কার মিছিল। ছবি: শঙ্কর ঘোষাল

माया कोडनानी को सुप्रीम कोर्ट से राहत नहीं

SC refuses to extend interim bail of Maya Kodnani in the 2002 Naroda Patiya riots case 39686



कांग्रेसियों ने तृकां नेताओं के पुतले फूंके

कांग्रेसियों ने तृकां नेताओं के पुतले फूंके 11115531



राम मंदिर चंदे का हिसाब दे भाजपा : मुलायम

bjp give an account of temple donation: mulayam singh 29373

राम मंदिर चंदे का हिसाब दे भाजपा : मुलायम

bjp give an account of temple donation: mulayam singh 29373

Saturday, February 22, 2014

2014-15 INTERIM BUDGET: Widening Hiatus between the Two Indias

February 23, 2014



AS the BJP and its prime ministerial candidate intensify their aggressive election campaign, questions have begun to be raised about the inclusive character of the ‘Gujarat Model of Development.’ Modi has often asserted that his economics and model of development has benefited all. But this claim is based on a manipulation of data which hide the actually rising inequalities within the state. This is seen in the debate that has erupted on the poverty line within the state.

February 23, 2014



CPI(M) Polit Bureau member and AP state committee secretary B V Raghavulu said an important chapter in the history of Telugu people is ending with the passing of AP Reorgansiation Bill 2013 in Lok Sabha. The opportunity for Telugu people to develop unitedly as a nationality has ended abruptly due to the failures and opportunism of the ruling classes.

February 23, 2014



BENGAL GANGRAPE: NCW must Ensure Speedy Justice: AIDWA

February 23, 2014



WITHIN 24 hours of Kolkata High Court's decision to form a Special Investigating Team (SIT) to investigate the murder case in Parui of Birbhum, Mamata Banerjee publicly stood beside Anubrata Mondal, the prime accused. Anubrata is the president of TMC Birbhum district. Mamata Banerjee praised Anubrata for all his 'good works' in the meeting of the TMC workers in Durgapur on February 15, 2014.

February 23, 2014



BUDGET 2014: Anti-People Interim Budget

February 23, 2014



AAP GOVERNMENT RESIGNATION

February 23, 2014



CPI (M) ON THE INTERIM BUDGET

February 23, 2014



Chief Minister Mamata Banerjee Saturday defended Birbhum Trinamool Congress district president Anubrata Mondal — the prime accused in the Sagar Ghosh murder case in which the Calcutta High Court has ordered constitution of a Special Investigation Team — terming him a “sincere leader” and a “capable organiser in the party”.

Ganasakti



NOT POLICY PARALYSIS, BUT POLICY TO BLAME – SITARAM YECHURY

Ganasakti



LEFT FRONT RAISES QUESTIONS OF VALIDITY OF THE BENGAL BUDGET

Ganasakti



MAMATA BEHIND THE SHIELD OF ANNA

PROTEST ON 26-02-2014 AGAINST ATTACK ON TEMPORARY TEACHERS BY MAMATA'S POLICE

WHISTLE- BLOWER PROTECTION BILL PASSED IN INDIAN PARLIAMENT

TMC LEADER SAMAR MAITI MURDERED AT NANDIGRAM

BENGAL BUDGET - EVEN COOKED UP FIGURES FALL SHORT OF LEFT ACHIEVEMENTS

Ganasakti



BRIGADE INFUSES NEW SPIRIT, BENGAL STANDS UP TO TERROR!

Ganasakti



ELECTORAL BATTLE WILL BE BETWEEN THREE COMBINATIONS :KARAT

Ganasakti



ELECTORAL BATTLE WILL BE BETWEEN THREE COMBINATIONS :KARAT

Ganasakti



KANKINARA HIGH SCHOOL

MOLESTATION OF WOMAN BY WB CONSTABLE

KEJRIWAL WRITES TO NARENDRA MODI

CPI (M)'S RAINA-KHANDAGHOSH ZONAL OFFICE VANDALIZED BY GOONS OF MAMATA



ANNA AND MAMATA

BHASA DIVAS IN WB ASSEMBLY

KISAN MARCH TO PARLIAMENT

Ganasakti



AMENDMENT TO PANCHAYAT ACT BY TMC GOVERNMENT

15TH LOK SABHA

MAMATA'S PANICK AT CBI ENQUIRY INTO SARADHA SCAM

RAPE AT POLBA

WB SCHOOL SERVICE COMMISSION: SUCCESSFUL CANDIDATES DENIED JOB

CPI(M) TAKES JIBE AT KEJRIWAL

Ganasakti



PEOPLE SALUTES LANGUAGE HEROES

Ganasakti



PEOPLE SALUTES LANGUAGE HEROES

Ganasakti



SARADHA CHIT FUND AND SUDIPTA SEN

HONOUR OF MOTHER TONGUE

DAMAL ELEPHANTS

Bangladeshi youth decorate the Bangladesh Central Language Martyrs' Memorial monument with flowers in homage to the martyrs of the 1952 Bengali Language Movement, at the Dhaka University campus in Dhaka on February 21, 2014.

POLICE IN WEST BENGAL ACTS AS A SLAVE OF MAMATA BANERJEE

RAJABAZAR SCIENCE COLLEGE

KHARAGPUR HIJLI COLLEGE

JANA SADHARAN COMMITTEE

DOCTORS' APPOINTMENT IN WEST BENGAL

CITU, SOUTH 24 PARGANAS

DOMJUR: TMC TERROR

BANGLA BHASA DIVAS

রায়না, খণ্ডঘোষে সি পি আই (এম) জোনাল দপ্তরে তৃণমূলের তাণ্ডব ভাঙচুর, আক্রমণে জখম পার্টিনেতারা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52362#sthash.z5DbWKyO.dpuf

Ganashakti

রায়না, খণ্ডঘোষে সি পি আই (এম) জোনাল দপ্তরে তৃণমূলের তাণ্ডব ভাঙচুর, আক্রমণে জখম পার্টিনেতারা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52362#sthash.z5DbWKyO.dpuf

Ganashakti

সায়েন্স কলেজে নিগৃহীত অধ্যাপক, উপাচার্যের দ্বারস্থ সহকর্মীরা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1539#sthash.XGaFiMIi.dpuf

Ganashakti

সায়েন্স কলেজে নিগৃহীত অধ্যাপক, উপাচার্যের দ্বারস্থ সহকর্মীরা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1539#sthash.XGaFiMIi.dpuf

Ganashakti

সায়েন্স কলেজে নিগৃহীত অধ্যাপক, উপাচার্যের দ্বারস্থ সহকর্মীরা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/breaking_news_details.php?newsid=1539#sthash.XGaFiMIi.dpuf

Ganashakti

আদালতে জামিন পেলেন ‘ফেরার’ ছাত্রনেতারা

Ganashakti

আদালতে জামিন পেলেন ‘ফেরার’ ছাত্রনেতারা

Ganashakti

আদালতে জামিন পেলেন ‘ফেরার’ ছাত্রনেতারা

Ganashakti

আদালতে জামিন পেলেন ‘ফেরার’ ছাত্রনেতারা

Ganashakti

আদালতে জামিন পেলেন ‘ফেরার’ ছাত্রনেতারা

Ganashakti

আদালতে জামিন পেলেন ‘ফেরার’ ছাত্রনেতারা

Ganashakti

Friday, February 21, 2014

কটুক্তির প্রতিবাদ করে টিএমসিপি নেতার গলাধাক্কা, লাথি খেলেন অধ্যাপক

কটুক্তির প্রতিবাদ করে টিএমসিপি নেতার গলাধাক্কা, লাথি খেলেন অধ্যাপক



পুলিস, মুখ্যমন্ত্রী, মানবাধিকার কমিশন, কেউ দিতে পারেননি আশ্বাস, আদালতের দ্বারস্থ দত্তপুকুরে নির্যাতি

পুলিস, মুখ্যমন্ত্রী, মানবাধিকার কমিশন, কেউ দিতে পারেননি আশ্বাস, আদালতের দ্বারস্থ দত্তপুকুরে নির্যাতি



দুর্নীতির অভিযোগে ইস্তফা দিলেন চেয়ারম্যান পারিষদের

আনন্দবাজার পত্রিকা - দক্ষিণবঙ্গ



মাকে এ মেরেছে, ধৃতকে দেখিয়ে বলল শিশু

আনন্দবাজার পত্রিকা - বর্ধমান



মাকে এ মেরেছে, ধৃতকে দেখিয়ে বলল শিশু

আনন্দবাজার পত্রিকা - বর্ধমান



কেজরিওয়ালকে প্রত্যুত্তর দিলেন অচ্যুতানন্দন

Ganashakti



কমরেড পার্বতী কৃষ্ণানের জীবনাবসান

Ganashakti



থ্যাচারের স্লোগান কেজরিওয়ালের মুখে : ইয়েচুরি

Ganashakti



আসলামদের জীবনে ফের আশার আলো জ্বেলে দিলো লালঝাণ্ডা

Ganashakti



দরিদ্রকে বঞ্চনায় সাফল্য

Ganashakti



দরিদ্রকে বঞ্চনায় সাফল্য

Ganashakti



হুমকি রুখে সমাবেশ কৃষি কারিগরি কর্মীদের সরকারী কর্মচারীদের যা বলেছিলেন তার ঠিক উলটো করছেন মুখ্যমন্ত্রী - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52332#sthash.k5k2v1iB.dpuf

Ganashakti



৬ষ্ঠ বেতন কমিশনের দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি পাঠালো কো-অর্ডিনেশন কমিটি নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা, ২০শে ফেব্রুয়ারি— বকেয়া মহার্ঘভাতা মিটিয়ে দেওয়া এবং ষষ্ঠ বেতন কমিশন গঠনের দাবি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে চিঠি দিল রাজ্য কো-অর্ডিনেশন কমিটি। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠানো এই চিঠিতে বলা হয়েছে, রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের ৩২শতাংশ মহার্ঘভাতা বেশ কিছুকাল ধরে বকেয়া পড়ে আছে। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মাচারীদের জন্য আরও ১০শতাংশ মহার্ঘভাতা প্রদান করা হবে বলে ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর ফলে কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারীরা তাঁদের পাওনা সর্বমোট ১০০শতাংশ মহার্ঘভাতা পাবেন। এরপরেও রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের বকেয়া মহার্ঘভাতা দেওয়া না হলে তা চরম অমানবিক কাজ হবে। চিঠিতে কো-অর্ডিনেশন কমিটির সম্পাদক মনোজকান্তি গুহ বলেছেন, রাজ্য সরকারী কর্মচারী জন্য গঠিত ৫ম বেতন কমিশনের দ্বিতীয় অংশের সুপারিশগুলি এবং কারিগরি কর্মচারীদের জন্য তৃতীয় অংশের সুপারিশগুলি রাজ্য সরকার এখনও কার্যকরী করেনি। এর ফলে কর্মচারী মধ্যে অসন্তোষ রয়েছে। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় সরকার তার কর্মচারীদের জন্য সপ্তম বেতন কমিশন গঠন করেছে। কমিশনের সদস্যদের নামও সরকার ঘোষণা করেছে। এই অবস্থায় রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের জন্য ষষ্ঠ বেতন কমিশন গঠন করা জরুরী। চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ষষ্ঠ বেতন কমিশন গঠনের দাবিও জানানো হয়েছে। - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52328#sthash.hDWjiA5L.dpuf

Ganashakti



মাধ্যমিক শুরু ২৪শে গণটোকাটুকির আতঙ্কে পর্ষদ প্রশাসক শোনালেন পুলিসের কাজের ফিরিস্তি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52334#sthash.D1YRzC73.dpuf

Ganashakti



সর্বস্তরেই আন্দোলন ছড়িয়ে দেবে নারী স্বাধিকার সমন্বয় ২৩শে কনভেনশন কলকাতায় - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52331#sthash.QamUzDnv.dpuf

Ganashakti



বিক্ষোভ সমাবেশ, পুলিসের কাছে স্মারকলিপি মধ্যমগ্রামে ধর্ষণ, দোষীদের শাস্তির দাবিতে ট্যাক্সিচালকরা - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52320#sthash.R6VtAisU.dpuf

Ganashakti



এবারও কুণালের জামিন হলো না

Ganashakti



প্রশংসা মমতার, ভোটমুখী কিনা উঠছে প্রশ্ন জঙ্গীপুরে সাংসদ পুত্রকে রেখে পিতার নামে শিলান্যাসের অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52311#sthash.KHH9TFkh.dpuf

Ganashakti



শাসকদলের মদতেই লাভপুরে বর্বরতা

Ganashakti



কামদুনি, মধ্যমগ্রামের বিচারের নিষ্পত্তি কবে,জানেন না আইনমন্ত্রী - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52308#sthash.BeXt922D.dpuf

Ganashakti



কামদুনি, মধ্যমগ্রামের বিচারের নিষ্পত্তি কবে,জানেন না আইনমন্ত্রী - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52308#sthash.BeXt922D.dpuf

Ganashakti



অম্বিকেশ কাণ্ডে যাবতীয় তথ্য চেয়ে পাঠালো হাইকোর্ট

Ganashakti



রাজীব হত্যার আসামীদের মুক্তি স্থগিত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52327#sthash.ldSq4FeK.dpuf

Ganashakti



মানুষের ঐক্যের স্বার্থেই চাই বামপন্থীদের, আহ্বান বিমান বসুর - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52337#sthash.bbDAVRW4.dpuf

Ganashakti



বাড়তি চাল নেই, টাকা বরাদ্দ নেই, গরিবের চালে প্রায় ৫০লক্ষ ভুতুড়ে! - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52341#sthash.SHxw1q18.dpuf

Ganashakti



বাড়তি চাল নেই, টাকা বরাদ্দ নেই, গরিবের চালে প্রায় ৫০লক্ষ ভুতুড়ে! - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52341#sthash.SHxw1q18.dpuf

Ganashakti



তেলেঙ্গানা বিল পাস রাজ্যসভায়

Ganashakti



আসলামদের জীবনে ফের আশার আলো জ্বেলে দিলো লালঝাণ্ডা

Ganashakti



আসলামদের জীবনে ফের আশার আলো জ্বেলে দিলো লালঝাণ্ডা

Ganashakti



রাস্তায় ফেলে অস্থায়ী শিক্ষকদের লাঠিপেটা করলো মমতার পুলিস - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52319#sthash.SpTBECLN.dpuf

Ganashakti



চিট ফান্ডের মালিকরা রাজ্যে সরকারের মাথায় বসে আছে, অভিযোগ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52339#sthash.So0r5CCZ.dpuf

Ganashakti



ভাষা আন্দোলনের রাজনৈতিক তাৎপর্য - জিয়াদ আলী

Ganashakti



২১শে ফেব্রুয়ারি : উৎসব না অন্য কিছু?

Ganashakti



Thursday, February 20, 2014

জনস্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগই চান অমর্ত্য সেন - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52281#sthash.0FnhfMXE.dpuf

Ganashakti

জনস্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগই চান অমর্ত্য সেন - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52281#sthash.0FnhfMXE.dpuf

Ganashakti

জনস্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগই চান অমর্ত্য সেন - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52281#sthash.0FnhfMXE.dpuf

Ganashakti

জনস্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগই চান অমর্ত্য সেন - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52281#sthash.0FnhfMXE.dpuf

Ganashakti

জনস্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগই চান অমর্ত্য সেন - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=52281#sthash.0FnhfMXE.dpuf

Ganashakti

জনস্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগই চান অমর্ত্য সেন

Ganashakti

সারদার চ্যানেলে টাকা ঢেলে চলেছেন তৃণমূলের নেতাই প্রশ্ন উঠলো কীভাবে লগ্নী, কেন লগ্নী, কার নির্দেশে লগ্নী

Ganashakti

সারদার চ্যানেলে টাকা ঢেলে চলেছেন তৃণমূলের নেতাই প্রশ্ন উঠলো কীভাবে লগ্নী, কেন লগ্নী, কার নির্দেশে লগ্নী

Ganashakti

সারদার চ্যানেলে টাকা ঢেলে চলেছেন তৃণমূলের নেতাই প্রশ্ন উঠলো কীভাবে লগ্নী, কেন লগ্নী, কার নির্দেশে লগ্নী

Ganashakti

সারদার চ্যানেলে টাকা ঢেলে চলেছেন তৃণমূলের নেতাই প্রশ্ন উঠলো কীভাবে লগ্নী, কেন লগ্নী, কার নির্দেশে লগ্নী

Ganashakti

সারদার চ্যানেলে টাকা ঢেলে চলেছেন তৃণমূলের নেতাই প্রশ্ন উঠলো কীভাবে লগ্নী, কেন লগ্নী, কার নির্দেশে লগ্নী

Ganashakti

সারদার চ্যানেলে টাকা ঢেলে চলেছেন তৃণমূলের নেতাই প্রশ্ন উঠলো কীভাবে লগ্নী, কেন লগ্নী, কার নির্দেশে লগ্নী

Ganashakti

প্রশ্ন ফাঁস, প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পরীক্ষাও বাতিল

Ganashakti

প্রশ্ন ফাঁস, প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পরীক্ষাও বাতিল

Ganashakti

প্রশ্ন ফাঁস, প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পরীক্ষাও বাতিল

Ganashakti

প্রশ্ন ফাঁস, প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পরীক্ষাও বাতিল

Ganashakti

প্রশ্ন ফাঁস, প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পরীক্ষাও বাতিল

Ganashakti

প্রশ্ন ফাঁস, প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পরীক্ষাও বাতিল

Ganashakti

তৃণমূলের দখলদারির ঘটনা প্রমাণিত মাজদিয়া কলেজে নির্বাচন বাতিল করলো হাইকোর্ট

Ganashakti

তৃণমূলের দখলদারির ঘটনা প্রমাণিত মাজদিয়া কলেজে নির্বাচন বাতিল করলো হাইকোর্ট

Ganashakti

পৌর স্বাস্থ্য কর্মীদের ছাঁটাই করা হচ্ছে নির্বিচারে

Ganashakti