RESIST FASCIST TERROR IN WB BY TMC-MAOIST-POLICE-MEDIA NEXUS

(CLICK ON CAPTION/LINK/POSTING BELOW TO ENLARGE & READ)

Tuesday, December 31, 2013

Rape victim dies a week after attempting suicide | Business Standard

Rape victim dies a week after attempting suicide | Business Standard


Kolkata gang-rape case: Civil society members to meet Governor MK Narayanan on Wednesday - India - DNA

Kolkata gang-rape case: Civil society members to meet Governor MK Narayanan on Wednesday - India - DNA


Kolkata gang-rape case: Civil society members to meet Governor MK Narayanan on Wednesday - India - DNA

Kolkata gang-rape case: Civil society members to meet Governor MK Narayanan on Wednesday - India - DNA


Rape victim dies a week after attempting suicide | Business Standard

Rape victim dies a week after attempting suicide | Business Standard


Politics over cremation of rape victim’s body - The Hindu

Politics over cremation of rape victim’s body - The Hindu

India: teenage girl, allegedly gang-raped, dies after setting herself on fire | euronews,

India: teenage girl, allegedly gang-raped, dies after setting herself on fire | euronews,


Bengal gang rape victim dies of burns - Hindustan Times

Bengal gang rape victim dies of burns - Hindustan Times


Bengal gang rape victim dies of burns - Hindustan Times

Bengal gang rape victim dies of burns - Hindustan Times


Rape victim dies days after suicide bid Kolkata: A 16-year-old girl, who was gang raped twice in a day around two-months-ago in the northern fringes of the city and had attempted suicide on December 23, succumbed to her injuries in a city hospital on Tuesday.The victim was admitted to the RG Kar Medical College and Hospital after she attempted self-immolation in her house near Dum Dum, where her family had shifted after the rape incidents at Madhyamgram. On October 25, the girl was first gangraped near her house in Madhyamgram and she was found by local residents in a field. Later on, when she was returning home along with her father, who is a taxi driver, and her mother after lodging a complaint with the local police station, she was again abducted by the same gang and raped, police said.

Fast News | The Freepress Journal


Rape victim dies days after suicide bid Kolkata: A 16-year-old girl, who was gang raped twice in a day around two-months-ago in the northern fringes of the city and had attempted suicide on December 23, succumbed to her injuries in a city hospital on Tuesday.The victim was admitted to the RG Kar Medical College and Hospital after she attempted self-immolation in her house near Dum Dum, where her family had shifted after the rape incidents at Madhyamgram. On October 25, the girl was first gangraped near her house in Madhyamgram and she was found by local residents in a field. Later on, when she was returning home along with her father, who is a taxi driver, and her mother after lodging a complaint with the local police station, she was again abducted by the same gang and raped, police said.

Fast News | The Freepress Journal


Kolkata gangrape case: Left supporters clash with Kolkata Police(Kolkata rape) , AniNews.in

Kolkata gangrape case: Left supporters clash with Kolkata Police(Kolkata rape) , AniNews.in


Gang-raped twice, minor succumbs to burn injuries - Video | The Times of India

Gang-raped twice, minor succumbs to burn injuries - Video | The Times of India


New Land Acquisition Act to come into force from today , AniNews.in

New Land Acquisition Act to come into force from today , AniNews.in


‘Negligence, cop inaction’ stalk victim’s kin - The Times of India

‘Negligence, cop inaction’ stalk victim’s kin - The Times of India


Bengal gangrape victim dies after self-immolation bid | Firstpost

Bengal gangrape victim dies after self-immolation bid | Firstpost


Mamata’s 13 parliamentary secys a drain on exchequer - Indian Express

Mamata’s 13 parliamentary secys a drain on exchequer - Indian Express


Minor who was gangraped twice dies — a week after suicide bid - Indian Express

Minor who was gangraped twice dies — a week after suicide bid - Indian Express


এ কি ফ্যাসিবাদ! আজ দুপুরে ধিক্কার মিছিল

Ganashakti


মৃতদেহ ছিনতাই করলো পুলিস অসহায় পরিবারকে ঘিরে তৃণমূলের অসভ্যতা

Ganashakti


মৃত্যুর পরেও বর্বরতা

Ganashakti


৭০ বছর সংগ্রামের ময়দানে থাকা এক সেনানীর স্মরণে

Ganashakti


মালিককে না জানিয়ে তাঁরই জমি বিক্রি করে দিচ্ছে তৃণমূলী নেতা-কর্মীরা

প্রতিশ্রুতি ভাঙার জবাব চাইলেন ছাত্র-যুবরা

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50380

অর্থলগ্নী সংস্থাগুলির এজেন্টদের সভা, মিছিল ৫ই জানুয়ারী সমাবেশের ডাক বহরমপুরে

শাক দিয়ে মাছ ঢাকা যায়?

70 JOURNALISTS MURDERED IN 2013: এক বছরে খবর সংগ্রহে গিয়ে খুন ৭০সাংবাদিক সংবাদ সংস্থা নিউইয়র্ক, ৩০শে ডিসেম্বর— গোটা দুনিয়ায় এই বছর অন্তত ৭০জন সাংবাদিক কাজ করতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন। সোমবার নিউইয়র্কে এই হিসেব দিয়েছে কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্ট সংস্থা। এরমধ্যে সিরিয়ায় সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে ২৯জন এবং ইরাকে ১০জন সাংবাদিকের মৃত্যু হয়েছে। সিরিয়ায় সিটিজেন জার্নালিস্ট এবং সম্প্রচারের কাজে যুক্ত সাংবাদিকরা হয় সরকারীবাহিনী অথবা বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত হয়েছেন। এর পাশাপাশি আল জাজিরা টিভির সাংবাদিক মহম্মদ আল-মিসালমা নিহত হন। দূর থেকে গুলি করে খুন করা হয় তাঁকে। মিশরে নিহত হয়েছেন ৬জন সাংবাদিক। কাজ করতে গিয়ে প্রতিবছর কত সাংবাদিক প্রাণ হারাচ্ছেন নিউইয়র্কের ‘কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্ট’ সংস্থাটি ১৯৯২সাল থেকে তা প্রকাশ করে চলেছে। এবছর যা পরিসংখ্যান পাওয়া গেছে তাতে দেখা যাচ্ছে অধিকাংশ সাংবাদিক নিজের বাসস্থান এলাকাতেই নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ করতে গিয়েই অধিকাংশ সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। মালিতে সন্ত্রাসবাদীরা রেডিও ফ্রান্সের দুই সাংবাদিককে অপহরণ করে খুন করে। তবে গত এক দশকে এই প্রথম যে মেক্সিকোতে কোনো সাংবাদিক খুন হননি। সিরিয়ায় চলতি বছরে ৬০জন সাংবাদিককে অপহরণ করা হয়েছিল। এরমধ্যে ৩০জনের এখনও খোঁজ পাওয়া যায়নি, জানিয়েছে ‘কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্ট’।

SAFDAR HASHMI: সফদারের শহীদীবরণে কর্মসূচী হবে ঝাণ্ডাপুরে

নিজস্ব প্রতিনিধি

নয়াদিল্লি, ৩০শে ডিসেম্বর- সফদর হাসমির শহীদীবরণের ২৫তম বার্ষিকীতে ঝাণ্ডাপুরে এবার ব্যাপক কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়েছে। ১৯৮৯-র ১লা জানুয়ারি ঝাণ্ডাপুরে নাটক করতে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছিলেন সফদার হাসমি। পরের দিন হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। এলাকার মানুষকে সমবেত করে, শিশুদের সৃজনশীলতাকে উৎসাহ দিয়ে এই কর্মসূচী নেওয়া হচ্ছে। গাজিয়াবাদের আর্থালার স্কুলের ছাত্রদের নিয়ে ‘গল্প বলার’ আসর হচ্ছে। স্থানীয়দের নিয়েই হচ্ছে পথনাটক। ঝাণ্ডাপুরের আম্বেদকর পার্কে মেলার আয়োজন করা হয়েছে। কাঠপুতলি কলোনির বস্তির জাদুকর ইশামুদ্দিন দেখাবেন ম্যাজিক। ২৫শে ডিসেম্বর থেকে ঝাণ্ডাপুর পার্ক, চারপাশের বাড়ির দেওয়ালে ছবি আঁকছেন দিল্লি আর্ট কলেজের ছাত্ররা। ১লা জানুয়ারি জননাট্য মঞ্চ ও ইতিহাস যৌথভাবে ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেরিটেজ ওয়াকের আয়োজন করেছেন। দেড় ঘণ্টার হাঁটাপথে এই অঞ্চলের ইতিহাস, লড়াইয়ের ইতিহাস, ইউনিয়ন গঠন এবং শিল্পের ভূমিকা ব্যাখ্যা করা হবে। আম্বেদকর পার্কে ১লা জানুয়ারি দুপুর একটায় জনসভায় বলবেন সি পি আই (এম) পলিট ব্যুরোর সদস্য সীতারাম ইয়েচুরি। ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত জনমের উদ্যোগে চলবে হল্লা বোল উৎসব।
- See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50387#sthash.UsbG2WrW.dpuf

ঐতিহ্যের তোয়াক্কা না করে চ্যাপলিন হল গুঁড়িয়ে বহুতল নির্মাণ করছে কর্পোরেশন

অর্জিত অধিকার রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে যাবেন সরকারী কর্মীরা

মধ্যমগ্রামের ধর্ষিতা ছাত্রীর চিকিৎসায় গণসংগ্রহে শ্রমিক-কর্মচারী-বুদ্ধিজীবীরা -

পার্শ্বশিক্ষকদের সম্মেলনে অভিযোগ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে চলেছে তৃণমূল সরকার

সন্ত্রাস করে শেষপর্যন্ত মানুষকে দমিয়ে রাখা যাবে না: ভট্টাচার্য

ফিরে দেখা ২০১৩ সন্ত্রাসের আবহে বছর শুরু, নৈরাজ্যে বছর শেষ। অন্তিম প্রহরে তাই আমাদের ফিরে দেখা এরাজ্যে শঙ্কার ৩৬৫দিন।

Saturday, December 28, 2013

শিল্পে গোল্লা এবং মুখ্যমন্ত্রীর নতুন ক্যালেন্ডার

Ganashakti


শিল্পে গোল্লা এবং মুখ্যমন্ত্রীর নতুন ক্যালেন্ডার

Ganashakti


লোকসভা ভোট এখনো অনেক দূর। ছ’মাস আগে থেকেই প্রচারের জন্য টাকার প্লাবন শুরু হয়ে গেছে রাজ্যে রাজ্যে। অন্য দল এখনো সেভাবে কোমর বেঁধে ময়দানে না নামলেও বি জে পি নেমেছে আদা জল খেয়ে।

Ganashakti


অলিখিত নিষেধাজ্ঞা

Ganashakti


কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসান


কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসান

নিজস্ব প্রতিনি‍‌ধি

কলকাতা, ২৮শে ডিসেম্বর – শ্রমিক আন্দোলনের প্রবীণ নেতা, ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)-র রাজ্য কমিটির সদস্য কমরেড কালী ঘোষ প্রয়াত হলেন। শনিবার সকাল ৮টায় কলকাতায় একটি বেসরকারী হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। রাজ্যের শ্রমিক আন্দোলনের প্রতিটা আঙিনায় জড়িয়ে থাকা শ্রমিক সংগঠক কমরেড কালী ঘোষ এই শতকের গোড়ার দিক থেকে গত বছর পর্যন্ত সি আই টি ইউ-র রাজ্য সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

শনিবার সি পি আই (এম) রাজ্য দপ্তর মুজফ্‌ফর আহ্‌মদ ভবনে প্রয়াত কমরেড কালী ঘোষের মরদেহ নিয়ে আসা হলে সেখানেই পার্টি নেতৃবৃন্দ মালা দিয়ে শ্রদ্ধা ও শোকজ্ঞাপন করেন। বেলা ১২টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত শ্রদ্ধার্পণের জন্য মরদেহ এখানেই রাখা ছিল। প্রয়াত কমরেডের মরদেহে মাল্যদান করেছেন সি পি আই (এম) রাজ্য সম্পাদক বিমান বসু, পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, বর্ষীয়ান পার্টিনেতা ও শ্রমিক সংগঠক মহম্মদ আমিন, পার্টিনেতা বিনয় কোঙার, রঘুনাথ কুশারী, দীপক দাশগুপ্ত, রবীন দেব, অমিতাভ বসু, বনানী বিশ্বাস, মানব মুখার্জি, রাজদেও গোয়ালা, রেখা গোস্বামী, দিলীপ সেন, অনাদি সাহু প্রমুখ।

এদিন কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসানে গভীর শোকপ্রকাশ করে বিমান বসু বলেন, মূলত পঞ্চাশের দশক থেকেই কমিউনিস্ট আন্দোলনে যুক্ত হয়েছিলেন কমরেড কালী ঘোষ। তারও আগে চল্লিশের দশকের শেষভাগে কমিউনিস্ট আন্দোলনের মিছিল-সমাবেশে অংশ নিতেন। পঞ্চাশের দশকের মধ্যভাগে তিনি কমিউনিস্ট পার্টির সদস্যপদ অর্জন করেন। পার্টির কাজ করতে করতেই এরপর ধীরে ধীরে তাঁর কাজ নির্দিষ্ট হয়ে যায় শ্রমিক সংগঠনে।

এদিন প্রয়াত কমরেড কালী ঘোষের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে সি আই টি ইউ রাজ্য সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী বলেন, সি আই টি ইউ এবং কালী ঘোষ এই দুইকে কখনও পৃথক করা যায় না। সি আই টি ইউ-র জন্মলগ্ন থেকেই দক্ষ শ্রমিক সংগঠকের ভূমিকা পালন করেছিলেন কালী ঘোষ। তার আগেও ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনে হাতে-কলমে কাজ করেছেন অনেক নিচু স্তরে। ১৯৮০সালে সি আই টি ইউ রাজ্য কমিটির যুগ্ম সম্পাদক হন কালী ঘোষ। ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের যাবতীয় খুঁটিনাটি বিষয় এবং দৈনন্দিন কাজ পরিচালনায় কমরেড কালী ঘোষের ভূমিকা ছিল মুখ্য। ২০০৩সাল থেকে কমরেড কালী ঘোষ সি আই টি ইউ-র রাজ্য সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন আর আমি রাজ্য সভাপতির। ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের এমন কোন বিষয় ছিলনা যা তিনি জানতেন না। সি আই টি ইউ-র অন্তর্ভুক্ত সমস্ত ইউনিয়নগুলি দৈনন্দিন কাজ পরিচালনার প্রশ্নে খুবই নির্ভরশীল ছিল কমরেড কালী ঘোষের ওপর। স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে এদিন শ্যামল চক্রবর্তী বললেন, ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের শতাধিক আইন রয়েছে যেগুলির মধ্যে বেশকিছু আইন প্রায়শই পরিবর্তিত হয়। এই শ্রম আইনগুলি ছিল কমরেড কালী ঘোষের নখদর্পণে। সি আই টি ইউ রাজ্য দপ্তরকেও পরম যত্নে আগলে রাখতেন কমরেড কালী ঘোষ। কমরেড কালী ঘোষের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন শ্যামল চক্রবর্তী।

কমরেড কালী ঘোষের প্রয়াণে গভীর শোকজ্ঞাপন করে সি আই টি ইউ রাজ্য সাধারণ সম্পাদক দীপক দাশগুপ্ত প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, সি আই টি ইউ-র এক সর্বাঙ্গীণ নেতা ছিলেন কমরেড কালী ঘোষ। যে কোন জটিল ও কঠিন পরিস্থিতিতে কমরেড কালী ঘোষের পরামর্শ আমরা গ্রহণ করতাম। বহুদিন ধরেই রাজ্য স্তরের শ্রমিক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন তিনি। এমনকি মনোরঞ্জনদার সময়তেও কালীদা রাজ্য স্তরের কেন্দ্রীয় নেতা ছিলেন। কালীদার অনুপস্থিতি এক বিরাট ক্ষতি শ্রমিক আন্দোলনের কাছে। তাঁর পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন তিনি। এদিন রাজ্যের নানা প্রান্তেই শ্রমিক আন্দোলনে জড়িয়ে থাকা মানুষের কাছে কমরেড কালী ঘোষের প্রয়াণের খবর পৌঁছলে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েন তাঁরা। বাঁকুড়া জেলার বিড়ি সমবায় সমিতির কর্মী সংগঠকরা কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসানের খবর পেয়ে কাজ বন্ধ করে দেন। তারপর শোকপ্রস্তাব গ্রহণ করে এলাকায় শোকমিছিল পরিক্রমা করে।

সি আই টি ইউ নেতা কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসানে গভীর শোক প্রকাশ করেছে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলী। এদিন এক বিবৃতিতে শোক প্রকাশের পাশাপাশি সি আই টি ইউ-র তরফে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়েছে। কমরেড কালী ঘোষের স্মরণে সংগঠনের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।

এদিন সাড়ে ১২টায় মুজফ্‌ফর আহ্‌মদ ভবন থেকে কমরেড কালী ঘোষের মরদেহ নিয়ে পার্টিনেতৃত্ব ও শ্রমিক সংগঠকরা ধীর পায়ে এগিয়ে যান সি আই টি ইউ রাজ্য দপ্তর শ্রমিক ভবনের উদ্দেশে। শ্রমিক ভবনে কমরেড কালী ঘোষের মরদেহ নিয়ে এলে তা সি আই টি ইউ-র রক্তপতাকায় আচ্ছাদিত করেন রাজ্য সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী ও দীপক দাশগুপ্ত। প্রয়াত শ্রমিকনেতার মরদেহে গভীর শোক জানিয়ে তাঁরা ছাড়াও মালা দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন রাজদেও গোয়ালা, শান্তশ্রী চ্যাটার্জি, এস এম সাদী, বিনয় কৃষ্ণ চক্রবর্তী, বিশ্বনাথ দাস, অনাদি সাহু, লক্ষ্মণ শেঠ, নিরঞ্জন চ্যাটার্জি, সুভাষ মুখার্জি, দেবাঞ্জন চক্রবর্তী, প্রশান্ত নন্দী চৌধুরী, গার্গী চ্যাটার্জি, রত্না দত্ত প্রমুখ সি আই টি ইউ রাজ্য স্তরের নেতৃত্ব। শ্রমিক ভবনেও এদিন অনেক পার্টিনেতা মালা দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন কমরেড কালী ঘোষের প্রতি। মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান দীপেন ঘোষ, কান্তি গাঙ্গুলি, শিবানী সেনগুপ্ত, দেবেশ দাস প্রমুখ।

অন্যান্য বামপন্থী শ্রমিক সংগঠনের নেতৃত্বও এদিন একে একে শ্রমিক ভবনে এসে মালা দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রিয় কমরেডের প্রতি। এ আই টি ইউ সি-র পক্ষে মাল্যদান করেছেন রঞ্জিৎ গুহ, টি ইউ সি সি-র পক্ষে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন সরল দেব, নরেন চ্যাটার্জি, শ্যামল কানুনগো প্রমুখ। এ আই সি সি টি ইউ-র পক্ষে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন দিবাকর ভট্টাচার্য, স্বপন চক্রবর্তী, আই এন টি টি ইউ সি-র পক্ষে মালা দিয়েছেন প্রমথেশ সেন। বেঙ্গল চটকল মজদুর ইউনিয়নের পক্ষে মালা দিয়েছেন গোবিন্দ গুহ, ইঞ্জিনিয়ারিং ফেডারেশনের পক্ষে জয়দেব ঘোষ, ১২ই জুলাই কমিটির পক্ষে শিবশঙ্কর রায়, বিদ্যুৎ কর্মীদের পক্ষে মুরারী ঘোষ, ডি ওয়াই এফ আই-র পক্ষে রাজীব মজুমদার, এস এফ আই-র পক্ষে মধুজা সেনরায়, মহিলা সমিতির পক্ষে রমলা চক্রবর্তী, লক্ষ্মীমণি ব্যানার্জি, এ বি টি এ-র পক্ষে জি কে শ্রীবাস্তব, এ বি পি টি এ-র পক্ষে কার্তিক বসু, ডিফেন্স এমপ্লয়িজ ফেডারেশনের পক্ষে কাজল দে, মিনিবাস ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের পক্ষে সুজিত দাস, অল ইন্ডিয়া বি এস এন এল কর্মীদের পক্ষে মিহির দাশগুপ্ত, ও এন জি সি-র পক্ষে সলিল বিশ্বাস, কোল ফেডারেশনের পক্ষে বিরজু যাদব, সিকিউরিটি ইউনিয়নের পক্ষে দিলীপ দাস, এস ই বি ইউনিয়নের পক্ষে কাঞ্চন মুখার্জি, মিউনিসিপ্যাল ফেডারেশনের পক্ষে দীপক মিত্র প্রমুখ। এছাড়াও ই এস আই সি এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন, পেনশনার্স অ্যাসোসিয়েশন, বীমা কর্মচারী, ব্যাঙ্ককর্মী আন্দোলনের সংগঠক, নেতৃত্ব একে একে এসে মালা দিয়ে গেছেন প্রিয় নেতার মরদেহে। এদিন প্রিয় কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসানে গভীর শোকজ্ঞাপন করে বহু সংগঠনের বিবৃতি আসতে থাকে। ফেডারেশন অব মেটাল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের পক্ষে শোকপ্রকাশ করেছেন সভাপতি বিনয় চক্রবর্তী ও নিরঞ্জন চ্যাটার্জি।

এদিন দুপুর ৩টের সময় শ্রমিক ভবন থেকে কমরেড কালী ঘোষের মরদেহ নিয়ে শুরু হলো শোকমিছিল। মল্লিকবাজার পর্যন্ত শোকমিছিলে পা মেলালেন বহু প্রবীণ শ্রমিক সংগঠক, সহযোদ্ধাও। এরপর তাঁর মরদেহবাহী গাড়ি চলে যায় বেহালায় সি পি আই (এম)-র জোনাল দপ্তরে। শনিবার দুপুর থেকেই বেহালা ট্রামডিপো সংলগ্ন এলাকায় সি পি আই (এম) বেহালা পূর্ব জোনাল দপ্তরের সামনে অপেক্ষায় ছিলেন বহু মানুষ। শ্রমিকভবন থেকে মল্লিকবাজার পর্যন্ত শোকমিছিল আসার পর মরদেহবাহী গাড়ি পৌঁছয় এখানেই। সি আই টি ইউ পশ্চিমবঙ্গ কমিটির সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী ও সম্পাদক দীপক দাশগুপ্তও সেখানে পৌঁছান। বেহালা ট্রামডিপো সংলগ্ন পূর্ব জোনাল দপ্তরের কাছে তাঁর মরদেহ শায়িত রাখা হয় বেশ কিছুক্ষণ। সেখানে গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে মাল্যদান করেন সি পি আই (এম) বেহালা পূর্ব ও পশ্চিম জোনাল কমিটি সহ বিভিন্ন আঞ্চলিক কমিটির নেতৃত্ব ও কর্মী সদস্যরা। শোক প্রকাশ করে মালা দেন কেষ্ট সরকার, মলয় রায়চৌধুরী, কুমকুম চক্রবর্তী, নির্মল মুখার্জি সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। এছাড়া এলাকার বিভিন্ন গণসংগঠনের পক্ষ থেকেও কালী ঘোষের মরদেহে মালা দেন নেতৃত্ব ও প্রতিনিধিরা। এরপর সি আই টি ইউ-র পক্ষ থেকে এক মিছিল শবদেহবাহী গাড়িটি নিয়ে ডায়মন্ডহারবার রোড পরিক্রমা করে। মৃদু আন্তর্জাতিক সঙ্গীতের সুরের তালে এগোতে থাকে মিছিল। গোটা পথ মুড়ে যায় লালপতাকায়। এরপর প্রয়াত শ্রমিক নেতার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় নফরচন্দ্র দাস রোডে তাঁর বাসভবনে। গোটা এলাকাই ছিল শোকস্তব্ধ। বাড়িতে শেষ শ্রদ্ধা জানাতেও ভিড় করেন এলাকার বহু মানুষ। প্রয়াত কালী ঘোষের স্ত্রী প্রতিমা ঘোষ ও পরিবারের অন্যান্য সদস্য, আত্মীয়রা চোখের জলে শেষ বিদায় জানান তাঁকে। সন্ধ্যায় দেহ নিয়ে যাওয়া হয় কেওড়াতলা মহাশ্মশানে। সেখানেই তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

জীবন: ১৯৩০সালের ২৪শে মার্চ কমরেড কালী ঘোষের জন্ম। কলকাতা হাইড রোডের সোনাইদিঘিতে থাকতেন তিনি। শৈলজাকান্ত ঘোষ ও সুষমা ঘোষের পুত্র ছিলেন কালী ঘোষ। তাঁরা এক ভাই ও ছ’বোন ছিলেন। শিক্ষাশেষে বামপন্থী মনন নিয়েই শ্রমিক আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েছিলেন। গোড়া থেকেই সর্বক্ষণের কর্মী হিসেবে শ্রমিকদের মধ্যে কাজ শুরু করে জীবনের শেষদিন পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রামের কাজ পরিচালনা করে গেছেন। ১৯৬৪সালে প্রতিমা ঘোষের সঙ্গে বিবাহসূত্রে আবদ্ধ হন তিনি।

আন্দোলনের গোড়ার দিকেই কারারুদ্ধ হতে হয় কমরেড কালী ঘোষকে। ১৯৪৯সালের শেষের দিকে দমদম-বসিরহাট মামলায় বিনা বিচারে এক বছরেরও বেশি সময়কাল তাঁকে জেলে কাটাতে হয়েছিল। হাইড রোড-বেহালা অঞ্চলে প্রায় প্রতিটি ছোট-বড় কারখানায় শ্রমিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন কমরেড কালী ঘোষ। জীবনের শেষদিন পর্যন্ত ইঞ্জিনিয়ারিং ফেডারেশনে নেতৃত্ব দিয়েছেন। চটকল, ফার্মাসিউটিক্যাল শিল্প, নির্মাণ কর্মী, প্যারাটিচার্স-সহ যাবতীয় শ্রমিক আন্দোলনের আঙিনায় তাঁর স্বচ্ছন্দ নেতৃত্বদানকারী ভূমিকা ছিল। কেন্দ্রীয় সরকারের ই এস আই-র কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পর্ষদের সদস্য ছিলেন জীবনের শেষদিন পর্যন্ত। ভবিষ্যনিধি প্রকল্পে রিজিওনাল উপদেষ্টা কমিটিরও সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৫সালে কমিউনিস্ট পার্টির সদস্যপদ অর্জন করেন কমরেড কালী ঘোষ। এরপর শ্রমিক আন্দোলনের কাজের পাশাপাশি কমিউনিস্ট আন্দোলনেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে গেছেন। ১৯৯১সালে শিলিগুড়িতে অনুষ্ঠিত সি পি আই (এম)-র রাজ্য সম্মেলন থেকে পার্টির রাজ্য কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন, যে দায়িত্বে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত ছিলেন।

সি আই টি ইউ-র দমদমে অনুষ্ঠিত তৃতীয় রাজ্য সম্মেলন (১৯৮০সালে) থেকেই রাজ্যে দপ্তর যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। শ্রমিক আন্দোলনের প্রতিটি স্তরেই হাতে-কলমে কাজ করে তাঁর দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা বাড়ে। ২০০৩সালে কলকাতায় অনুষ্ঠিত অষ্টম রাজ্য সম্মেলন থেকে ২০১২ সালে দশম রাজ্য সম্মেলন পর্যন্ত তিনি রাজ্য সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। শারীরিক অসুস্থতার কারণেই দশম রাজ্য সম্মেলন থেকে সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি নেন কমরেড কালী ঘোষ। তারপরও শ্রমিক আন্দোলনে নিয়মিত কাজ করে গেছেন সংগঠনের রাজ্য অন্যতম সম্পাদক হিসেবে। ১৯৯৪সালে পাটনায় অনুষ্ঠিত সি আই টি ইউ-র সর্বভারতীয় অষ্টম সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য হন। তারপর থেকে ২০১৩সালে কেরালার কান্নুরে অনুষ্ঠিত ১৪তম সর্বভারতীয় সম্মেলন পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য হিসেবে দায়িত্বভার সামলেছেন। ঐ সম্মেলন থেকেই শারীরিক কারণে অব্যাহতি নেন ও ওয়ার্কিং কমিটির সদস্য হন।

সি আই টি ইউ-র প্রতিনিধি হিসেবেই বিশ্বের নানা দেশে শ্রমিক আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত সংগঠনের সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন কমরেড কালী ঘোষ। শ্রমিকনেতা হিসেবে সমস্ত কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলির গ্রহণযোগ্য ছিলেন তিনি। ঐক্যবদ্ধ শ্রমিক আন্দোলনের অন্যতম স্থপতি ছিলেন কমরেড কালী ঘোষ। দেশের শ্রম আইন সম্পর্কে তাঁর গভীর জ্ঞান ও সুচিন্তিত মতামত কাজে লাগতো শ্রমিক সংগঠকদের। বেশ কয়েকটি আইন সংশোধন করতে তাঁর পরামর্শ কাজে লেগেছিল। তাঁর লেখা শ্রম আইন সম্পর্কে একটি বাংলা বই বহুল প্রচারিত। ট্রেড ইউনিয়নে রাজনৈতিক শিক্ষক হিসেবেও তিনি ছিলেন সমাদৃত। 

শ্রমিক আন্দোলনের লড়াকু যোদ্ধা কমরেড কালী ঘোষের জীবনাবসানে রাজ্যের সর্বত্র সি আই টি ইউ-র দপ্তরগুলিতে শনিবার ও রবিবার রক্তপতাকা অর্ধনমিত থাকবে বলে এদিন জানিয়েছেন সি আই টি ইউ রাজ্য সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী ও রাজ্য সাধারণ সম্পাদক দীপক দাশগুপ্ত। আগামী ৯ই জানুয়ারি বিকেল ৫টায় শ্রমিক ভবনে অনুষ্ঠিত হবে কমরেড কালী ঘোষের স্মরণসভা। 

- See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50349#sthash.jsADfuky.dpuf


শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করে খুন, অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার ছেলে

Ganashakti


দায় এড়াতেই বিস্ফোরণকাণ্ডে কে এল ও যোগসূত্র অস্বীকার করছেন তৃণমূল নেতারা?

Ganashakti


আর্থিক কেলেঙ্কারিতে এ’বছর জনতা খুইয়েছেন ৪০হাজার কোটিরও বেশি

Ganashakti


সূর্যকান্ত মিশ্রের সভার প্রচার করায় গ্রেপ্তার ছাত্রনেতাকে

Ganashakti


মধ্যমগ্রামে ধর্ষিতা কিশোরীর বাড়িতে যুব নেতৃবৃন্দ, ডেপুটেশন নিজস্ব সংবাদদাতা

Ganashakti


এবার ফুটপাতবাসী মূক-বধিরকে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিনিধি

কলকাতা, ২৭শে ডিসেম্বর— শহরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ক্রমশই ব্যর্থ কলকাতা পুলিস। পার্ক স্ট্রিটে ফুটপাতবাসিনী এক কিশোরী ধর্ষণের ঘটনার ৪ দিনের মধ্যেই আবার ধর্ষণের অভিযোগ। এবার কলকাতা স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় এক মূক ও বধির তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক রাজকিশোর যাদব(৩৫) নামে এক ট্যাক্সি চালকের বিরুদ্ধে। এই তরুণীও ফুটপাতবাসী বলে পুলিস সূত্রে জানা গেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে শেষ পর্যন্ত পুলিস গ্রেপ্তার করেছে ওই অভিযুক্তকে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে উলটোডাঙ্গা থানা এলাকার কলকাতা স্টেশন চত্বরে। সেখানে এক মূক ও বধির তরুণীকে ডেকে নিয়ে গিয়ে ট্যাক্সি স্ট্যান্ডের পেছনে নির্জন চত্বরে ওই যুবক ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ। পরে ওই তরুণীর চিৎকারে সেখানে কিছু মানুষ জড়ো হয়ে যান। শারীরিক নির্যাতনে গুরুতর আহত তরুণীকে নিয়ে যাওয়া হয় আর জি কর মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে তাঁর চিকিৎসা চলছে। রাজকিশোর যাদবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিস। পুলিস জানিয়েছে, খাবার দেওয়ার নাম করে তরুণীটিকে ডেকে নিয়ে যায় যুবকটি। তারপর নির্যাতন চালায় তরুণীটির ওপর। শুক্রবার অভিযুক্তকে শিয়ালদহ ব্যাঙ্কশাল কোর্টে হাজির করানো হয়। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। তরুণীটির শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে বলে পুলিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
- See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50284#sthash.pAg5liO0.dpuf

চিকিৎসার জন্য অর্থ সাহায্যের আবেদন জানালেন বিশিষ্টজনেরা আই সি ইউ তে স্থানান্তরিত করা হলো মধ্যগ্রামের সেই কিশোরীকে

কুণালের গোপন জবানবন্দীর শঙ্কা থেকে রেহাই পেল রাজ্য

ট্রেড ইউনিয়নকে শায়েস্তা করতে নামবেন মদন মুখ্যমন্ত্রীকে কার্যত চ্যালেঞ্জ করেই সাফল্য দাবি করলেন পার্থ চ্যাটার্জি নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা, ২৭ শে ডিসেম্বর— মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে ‘গোল্লা’ দিলেও তিনি তা মনে করেন না। উলটে ‘পরিবর্তনের’ রাজ্যে শিল্পায়নের কাজে তিনি যে যথেষ্ট ‘সফল’ তা প্রমাণ করতে এবার সরাসরি নেমে পড়লেন মাত্র একদিনের ‘প্রাক্তন’ শিল্পমন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি। আর এজন্য তিনি বেছে নিলেন শিল্প মেলাকেই। কোনো রাখ–ঢাক না রেখেই এদিন পার্থ চ্যাটার্জি গত আড়াই বছর ধরে এরাজ্যের শিল্প–মানচিত্রে কতোটা ‘পরিবর্তন’ আনতে চেয়েছিলেন তার খতিয়ান তুলে ধরলেন স্বয়ং। এরপর কার্যত মুখ্যমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ করেই বললেন, এবার মূল্যায়নের ভার থাকলো রাজ্যবাসীর কাছেই। শুক্রবার মিলন মেলায় ‘ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইন্ডিয়া ট্রেড ফেয়ার (আই আই টি এফ ২০১৩)–র উদ্বোধন করে পার্থ চ্যাটার্জি যে বক্তব্য রাখেন তার সার হলো বিগত সময়ে ন্যস্ত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে যা তিনি করেছেন তার সবটাই মুখ্যমন্ত্রীর জ্ঞাতসারে হয়েছে। তাঁর সময়কালে রাজ্যের শিল্প মানচিত্রে অনেকটা ইতিবাচক পরিবর্তন হয়েছে। বিগত ৩১মাসে তাই শিল্প ও বাণিজ্য ক্ষেত্রে অনেকগুলি সংস্কার হয়েছে। ঘোষিত হয়েছে নতুন তথ্য – প্রযুক্তি পরিকল্পনা। নতুন বিনিয়োগ ও শিল্প-বাণিজ্য নীতির ফলে এক্ষেত্রে লক্ষণীয় অগ্রগতিগুলি হয়েছে। পার্থ চ্যাটার্জি এদিন পরপর তাঁর আমলের ঐ ৩১মাসের ‘সাফল্যে’র নানা তথ্য পরিবেশন করে যান। তাঁর দাবি অনুযায়ী চলতি বছরের অক্টোবর মাস পর্যন্ত মোট ১লক্ষ ১৫হাজার ৭৫৫কোটি টাকার বিনিয়োগে ৩১১টি শিল্প গড়ার প্রস্তাব এসেছে। যেখানে ৩লক্ষ ৪০হাজার কর্মসংস্থান হবে। পশ্চিমবঙ্গ শিল্প উন্নয়ন নিগমের বিভিন্ন শিল্প মৌজায় ২০টি ক্ষেত্রে ৬২৭.১৭৯একর জমির সংস্থান করা হয়ে গেছে। এখানে বিনিয়োগের পরিমাণ হলো ৩৬৫৭.৮৪কোটি টাকা। কর্মসংস্থানের সম্ভাবনা এখানে ১৯হাজার ১১১জনের। এছাড়াও ৭টি বিশেষ সংস্থার জন্য জমি ও বিনিয়োগ ধার্য করা হয়ে গেছে। এখানে জমির সংস্থানের পরিমাণ ৪১.১৫৭বর্গফুট। বিনিয়োগ হচ্ছে ১৮কোটি টাকা। এখানে কর্মসংস্থান হবে ৯০জনের। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিবহনমন্ত্রী মদন মিত্র, রাজ্যের মুখ্যসচিব সঞ্জয় মিত্র, ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি কাজী আক্রাম উদ্দিন আহমদ, ঢাকা চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইনডাস্ট্রিজ – এর সভাপতি মহম্মদ সাবুর খান, বেঙ্গল ন্যাশনাল চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি দিব্যেন্দু বসু প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ দেন মেলা কমিটির সভাপতি শিল্পপতি সন্দীপ সেন। পরিবহনমন্ত্রী মদন মিত্র তাঁর বক্তব্যে কিছুটা প্রসঙ্গ ছাড়াই হুমকির সুরে বলে বসেন, রাজ্যে নতুন শিল্প উদ্যোগ এলে সেখানে ট্রেড ইউনিয়নগুলিকে কোনোভাবেই বরদাস্ত করা হবে না। আই এন টি টি ইউ সি-ও যদি কোনো ঝামেলা করতে চায় তাহলে সেক্ষেত্রে সবাইকে শায়েস্তা করতে তিনি নিজে আসরে নামবেন। উল্লেখ্য, এবারের এই শিল্প-বাণিজ্য মেলা চলবে আগামী ৫ই জানুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকছে মেলা। প্রবেশ সর্বসাধারণের জন্য অবাধ। মেলা ও প্রদর্শনীতে চারশোর বেশি স্টল ও প্যাভেলিয়ান। বাংলাদেশ ছাড়াও থাকছে পাকিস্তান, তুর্কী, সিঙ্গাপুর, তাইওয়ান, মিশর, ঘানা, আফগানিস্তান, ভুটান, হঙকঙ, জাপান ইত্যাদি দেশের সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন শিল্প-বাণিজ্য সংস্থার প্রতিনিধিরা।

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50300

ট্রেড ইউনিয়নকে শায়েস্তা করতে নামবেন মদন, মুখ্যমন্ত্রীকে কার্যত চ্যালেঞ্জ করেই সাফল্য দাবি করলেন পার্থ চ্যাটার্জি -

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50300

ম্যান্ডেলার স্মরণসভার অনুমতি মিললো না

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50316

আদর্শ আবাসনের দুর্নীতি নিয়ে চ্যবন সরকারকেই দুষলেন রাহুল

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50318

জমিতে জি এম চাষ পরীক্ষার অনুমতি দিতে চলেছে কেন্দ্র মইলি বসেই উলটে দিচ্ছেন আগের মন্ত্রীদের সিদ্ধান্ত

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50289

কর্মচারীদের জোটবদ্ধ করেই রোখা হবে অধিকার হরণের চেষ্টা দৃঢ় প্রত্যয় জানিয়ে শুরু কো-অর্ডিনেশন কমিটির রাজ্য সম্মেলন

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50288

বিভেদকামী শক্তির বিরুদ্ধে কড়া হোক প্রশাসন, চায় সি পি আই (এম)

Ganashakti


বিভেদকামী শক্তির বিরুদ্ধে কড়া হোক প্রশাসন, চায় সি পি আই (এম)

Ganashakti


মুখ্যমন্ত্রীর ‘কে এল ও বলে কিছু নেই’ মন্তব্যেই আলগা হয়েছে সতর্কতা

Ganashakti


মুখ্যমন্ত্রীর ‘কে এল ও বলে কিছু নেই’ মন্তব্যেই আলগা হয়েছে সতর্কতা

Ganashakti


মুখরক্ষার কৌশল

Ganashakti


মুখরক্ষার কৌশল

Ganashakti


ভোটের মুখে মোর্চা-তৃণমূল জোট?

Ganashakti


৬-এর আহ্বান গণতন্ত্র রক্ষা ও সম্প্রসারণের

Ganashakti


৬-এর আহ্বান গণতন্ত্র রক্ষা ও সম্প্রসারণের

Ganashakti


Friday, December 27, 2013

রিপন স্ট্রিটে ধর্ষণের ঘটনায় ধৃত আরো ১

Ganashakti


মাওয়ের পতাকা ঊর্ধ্বে তুলে রাখার আহ্বান জানালেন শি

Ganashakti


মাওয়ের পতাকা ঊর্ধ্বে তুলে রাখার আহ্বান জানালেন শি

Ganashakti


“বাংলাদেশে ১৯৭১-এর যুদ্ধাপরাধীদের মদতে বিদেশী শক্তি” - হাসান তারিক চৌধুরী

বাংলাদেশে ১৯৭১-এর যুদ্ধাপরাধীদের মদতে বিদেশী শক্তি” - হাসান তারিক চৌধুরী


(লেখক বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সি পি বি) নেতা)

বাংলাদেশের সাধারণ জনগণ যখন ৭১-র ঘাতক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও শাস্তির দাবিতে সোচ্চার, যখন চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দেশের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুন্যালের দ্বারা প্রায় সম্পন্ন তখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আবার তার স্বরূপে আবির্ভূত হয়েছেমা‍‌র্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার সেই পুরানো মিত্র ঘাতক পাকিস্তানীচক্র ও তার সহযোগীদেরকে নিয়ে এই বিচার প্রক্রিয়া বানচাল করার চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছেইতোমধ্যেই বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড বিষয়ে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ, পাঞ্জাব প্রাদেশিক পরিষদ ও পাকিস্তানের কেন্দ্রী মন্ত্রী বিবৃতি দিয়েছেনপাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদী জঙ্গী সংগঠন তেহরিক-ই-তালেবান ইসলামাবাদে বাংলাদেশ দূতাবাসে হামলার হুমকি দিয়েছেবিশেষ করে, যুদ্ধাপরাধী ঘাতক কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হবার পর সাম্রাজ্যবাদের এই তৎপরতা আরো বৃদ্ধি পেয়েছেনরঘাতক কাদের মোল্লাকে বাঁচানোর জন্য শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়েছে বর্তমান মার্কিন প্রশাসনদেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে, কিভাবে বর্তমান মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কে‍‌রি দফায় দফায় টেলিফোন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কসাই কাদের মোল্লার দণ্ড স্থগিত করার জন্য তদ্বির চালিয়েছেনমার্কিন সাম্রাজ্যবাদের এই সমন্বিত অপচেষ্টার অংশ হিসেবে তাদের আন্তর্জাতিক মিত্র ব্রিটেন ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন বিবৃতি দিয়ে বাংলাদেশের চলমান যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে

শুধু এসব দেশই নয়, রাষ্ট্রসঙ্ঘ, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা এই বিচার প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেএসব সংস্থা তাদের বিভিন্ন বিবৃতিতে বলেছে, নরঘাতক কাদের মোল্লার এই শাস্তি নাকি মানবাধিকারের পরিপন্থী! একই সঙ্গে তারা বলেছে, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের গোটা বিচার প্রক্রিয়া নাকি প্রশ্ন সাপেক্ষগত ১২ই ডিসেম্বর মার্কিন পত্রিকা লস অ্যাঞ্জেলস টাইমসপররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির ভূমিকা সম্পর্কে স্পষ্ট করেই লিখেছে যে, কেরি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে টেলিফোন করে অনুরোধ করেছেন, তিনি যেন যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লার দণ্ড স্থগিত করার অথবা বিলম্বিত করার জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করেনকাদের মোল্লার পক্ষে সাফাই গাইতে গিয়ে জন কেরি শেখ হাসিনাকে বলেছেন, বাংলাদেশের এই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের বিচার প্রক্রিয়া নাকি আন্তর্জাতিক মানের নয়স্বচ্ছতা ও ন্যায় বিচারের স্বার্থেই নাকি এই বিচার প্রক্রিয়া স্থগিত করা দরকারজন কেরির এই বক্তব্য যুদ্ধাপরাধীদের দল জামাত-শিবির চক্র এবং পাকিস্তানের বিভিন্ন সংস্থা ফলাও করে প্রচার করেজন কেরির এই বক্তব্য আবারো প্রমাণ করেছে, মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ তার স্বভাবসিদ্ধ কারণেই এতটুকুই বদলায়নিবাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ প্রসঙ্গে তারা তাদের পুরানো অবস্থানেই রয়ে গেছে৭১-এর পরাজয়ের গ্লানি পাক-মার্কিন চক্রকে এখনো তাড়িয়ে বেড়াচ্ছেফলে যে আন্তর্জাতিক শক্তি স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের বিরোধিতা করেছিল, তারা স্বাধীনতার পরেও বাংলাদেশকে পাকিস্তানী ধারায় ফিরিয়ে নেওয়ার চেষ্টায় নিয়োজিত রয়েছেতারা সকলেই আজ রাজাকার-আলবদরের বিচার প্রসঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেঅথচ মার্কিন প্রশাসন ও তাদের পোষা বুদ্ধিজীবীরা এখনো কথায় কথায় ইসলামী জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কথা বলেকিন্তু তারাই আজ ঘাতক জামাতে ইসলামীর মতো ইসলামী জঙ্গিবাদীদের সমর্থন দিচ্ছেতাদের এই দ্বিমুখী নীতি প্রমাণ করে সাম্রাজ্যবাদ কোনোভাবেই ধর্মীয় জঙ্গিবাদ কিংবা ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে নয়ধর্মীয় জঙ্গিবাদ তাদের একটি বাহানা মাত্রযখন যেখানে যেভাবে দরকার নিজেদের স্বার্থে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ এই ইস্যুটি ব্যবহার করে মাত্র

যে মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক মানের বিচার প্রক্রিয়ার কথা আজ মার্কিন সরকার বলছে সেটি আসলে ফাঁকা বুলিমাত্রইরাক আগ্রাসনের পর কোন্‌ আন্তর্জাতিক মান ও স্বচ্ছতা বজায় রেখে ক্ষমতাচ্যুত ইরাকী রাষ্ট্রপতি সাদ্দাম হোসেনের বিচার করা হয়েছিল? লিবিয়ার নেতা মুয়াম্মার গদ্দাফির বিচার ন্যাটো কোন্‌ আইনের বলে করেছিল? সেখানে কতটা ন্যায়বিচার হয়েছিল? আজও পাকিস্তানে মার্কিন ড্রোন হামলায় হাজারো নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে কোন্‌ আন্তর্জাতিক মান রক্ষা করে? মার্কিন প্রশাসন এসবের কোনো সন্তোষজনক জবাবই দিতে পারেনিঅ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মতো আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো আজ খুনি কাদের মোল্লার মানবাধিকার রক্ষার কথা বলছেকিন্তু তারা কি জবাব দিতে পারবে যে, যুদ্ধাপরাধী নরঘাতককে দেশের প্রচলিত আইনের আওতায় বিচার ও দণ্ড দান কোন্‌ অর্থে মানবাধিকার পরিপন্থী? আজ সঙ্গত কারণেই প্রশ্ন করতে চাই, ১৯৭১ সালে পাকিস্তানী বাহিনী যখন বাংলাদেশের নিরস্ত জনগণের ওপর পৈশাচিক গণহত্যা চালায় তখন কোথায় ছিল এসব মানবাধিকার সংগঠন? এসব আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন সমাজতান্ত্রিক সোভিয়েত ইউনিয়নে ভিন্নমত রক্ষার নামে মানবাধিকার ইস্যুতে গলদঘর্ম হয়েছেকিন্তু ইরাক-আফগানিস্তানে মার্কিন গণহত্যায় মানবাধিকার লঙ্ঘন খুঁজে পায়নিমার্কিন সাম্রাজ্যবাদ ও তার পশ্চিমী মিত্রদের এই মদত পেয়েই ৪২ বছর পর অবার ফণা তুলে দাঁড়িয়েছে ৭১-এর পরজিত শক্তি পাকিস্তানআজ সেই পাকিস্তান আত্মসমর্পণের সমস্ত শর্ত তুলে নিয়ে স্বাধীন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেএমনকি পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে ৭১-এর ঘাতকদের পক্ষে প্রস্তাব গ্রহণ করেছেএই অপশক্তিই আজ বাংলাদেশে স্বাধীনতা-বিরোধী ঘাতক মৌলবাদী চক্রকে মদত দিচ্ছে যাতে করে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এখনই পণ্ড হয়ে যায়, বাংলাদেশ পরিণত হয় একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রেদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে শুরু করে নানা বিষয়ে সৃষ্ট জটিলতা এসব ঘটনা থেকে বিচ্ছিন্ন কিছু নয়মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ যুদ্ধপরাধ ইস্যুতে স্বরূপে আবির্ভূত হয়ে সে সত্যেরই জানান দিয়ে গেলোসাম্রাজ্যবাদ ও ফ্যাসিবাদের এই ভয়ানক বন্ধন আজ বাংলাদেশকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলছেএর বিরুদ্ধে জোরদার গণসংগ্রাম আজ সময়ের দাবি

- See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50269#sthash.TcaAH

জন্মশতবর্ষে বর্ধমান জেলার

Ganashakti


জন্মশতবর্ষে বর্ধমান জেলার

Ganashakti


সারদার পর এস জে ডি এ। তৃণমূল শাসনে রাজ্যে এই দ্বিতীয় বৃহত্তম আর্থিক কেলেঙ্কারি আড়াল করার চেষ্টা করছে শাসকদল। আচমকাই ফাঁস হয়েছে শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের শতাধিক কোটি টাকার কেলেঙ্কারি।

Ganashakti


সারদার পর এস জে ডি এ। তৃণমূল শাসনে রাজ্যে এই দ্বিতীয় বৃহত্তম আর্থিক কেলেঙ্কারি আড়াল করার চেষ্টা করছে শাসকদল। আচমকাই ফাঁস হয়েছে শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের শতাধিক কোটি টাকার কেলেঙ্কারি।

Ganashakti


কুণাল ফের কলকাতা পুলিসের হেফাজতে

Ganashakti


তৃণমূলের স্বেচ্ছাচারিতা মেনে নেবেন না মানুষ : সুজন চক্রবর্তী

Ganashakti


তৃণমূলের স্বেচ্ছাচারিতা মেনে নেবেন না মানুষ : সুজন চক্রবর্তী

Ganashakti


পুলিসের পর এবার অসহযোগিতা শুরু করলো হাসপাতাল। মধ্যমগ্রামের ধর্ষণের শিকার মুমূর্ষু কিশোরীর উন্নত চিকিৎসার জন্য বৃহস্পতিবার এস এস কে এম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টাতেও বাধা দেয় আর জি কর হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ। এদিন ঐ অগ্নিদগ্ধ কিশোরীর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁর পরিবার কলকাতার এস এস কে এম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেছিলো। কিন্তু কিছুতেই আর জি কর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগী ‘রেফার’ করতে রাজি হয়নি।

Ganashakti


বললো সি পি আই (এম) দেশজুড়ে গণতন্ত্র রক্ষার স্বার্থেই পশ্চিমবঙ্গে আক্রমণের প্রতিবাদ জরুরী

Ganashakti


PARTHA CHATTERJEE, WEST BENGAL MINISTER: শিল্প দপ্তর কেড়ে নেওয়ায় ক্ষুব্ধ পার্থ

Ganashakti


মন্ত্রিসভায় রদবদল : ‘ডাহা ফেল’ পার্থ’র থেকে শিল্প দপ্তর কেড়ে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী

Ganashakti


বামফ্রন্টের সভা-মিছিলের বিরুদ্ধে অলিখিত নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে রাজ্যে ম্যান্ডেলার স্মরণসভার অনুমতিও মেলেনি

Ganashakti


বামফ্রন্টের সভা-মিছিলের বিরুদ্ধে অলিখিত নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে রাজ্যে ম্যান্ডেলার স্মরণসভার অনুমতিও মেলেনি

Ganashakti


Thursday, December 26, 2013

`Who will assess Mamata`s performance?`

`Who will assess Mamata`s performance?`


`Who will assess Mamata`s performance?`

`Who will assess Mamata`s performance?`


Kolkata: Retired Justice Ganguly, accused of sexually harassing a former law intern, will be taken off the post of chairman of West Bengal Human Rights Commission (WBHRC) before the year end. | GulfNews.com

Justice Ganguly to be removed before year’s end | GulfNews.com


Kolkata: Retired Justice Ganguly, accused of sexually harassing a former law intern, will be taken off the post of chairman of West Bengal Human Rights Commission (WBHRC) before the year end. | GulfNews.com

Justice Ganguly to be removed before year’s end | GulfNews.com


Former Bengal Lokayukta extends support to Ganguly

Former Bengal Lokayukta extends support to Ganguly


Former Bengal Lokayukta extends support to Ganguly

Former Bengal Lokayukta extends support to Ganguly


If Ganguly quits, it will set a dangerous precedent, says Sorabjee - The Hindu

If Ganguly quits, it will set a dangerous precedent, says Sorabjee - The Hindu


Nobody should be condemned unheard, says former Lokayukta - The Hindu

Nobody should be condemned unheard, says former Lokayukta - The Hindu


Nobody should be condemned unheard, says former Lokayukta - The Hindu

Nobody should be condemned unheard, says former Lokayukta - The Hindu


Cabinet may consider Ganguly issue today- The Hindu

Cabinet may consider Ganguly issue today - The Hindu


Cabinet may consider Ganguly issue today- The Hindu

Cabinet may consider Ganguly issue today - The Hindu


Do politicians quit on allegations, asks former Bengal Lokayukta



Former Bengal Lokayukta extends support to Justice A K Ganguly Read more at: http://economictimes.indiatimes.com/articleshow/27921697.cms?utm_source=contentofinterest&utm_medium=text&utm_campaign=cppst

নজুরুল ইসলামের করা মামলায় জেরবার রাজ্য সরকার

প্রস্তাবিত উত্তরপাড়া ফিল্মসিটির জমি থেকে ইটভাটা সরানোর প্রক্রিয়া হাইকোর্টের নির্দেশে স্থগিত। বড়দিনের আগের রাতে তেমনই একটি ইটভাটার মালিক-সহ পাঁচ জনের বাড়িতে হামলার অভিযোগে তৃণমূলের এক কাউন্সিলর-সহ চার জনকে গ্রেফতার করা হল। হামলার প্রতিবাদে বুধবার স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ বিক্ষোভ দেখান। পুলিশ অবশ্য ইটভাটা-প্রসঙ্গ এড়িয়ে গিয়ে দাবি করছে, ব্যক্তিগত আক্রোশের বশেই এই হামলা।


ভয় পেয়েই আক্রমণ বাড়াচ্ছে তৃণমূল সাংবাদিক বৈঠকে তারিণী রায়

Ganashakti


পুলিস হেফাজতে ছেলের মৃত্যুর কারণ খুঁজতে সি বি আই তদন্ত চাইলেন মা

Ganashakti


৩০বছর ধরে চাষ করা জমি থেকে ১০০গরিবকে উচ্ছেদ করলো পুলিস

Ganashakti


মাওয়ের অবদানই প্রধান, মনে করেন চীনের মানুষ

Ganashakti


MAO ZEDONG: "নাও মানুষের কাছ থেকে, যাও মানুষের কাছে" - দেবাশিস চক্রবর্তী

Ganashakti


MAO ZEDONG: "নাও মানুষের কাছ থেকে, যাও মানুষের কাছে" - দেবাশিস চক্রবর্তী

Ganashakti


ধর্ষিতাই অপরাধী

Ganashakti


হকার বিল রাজ্যসভায় পেশ না করায় ক্ষোভ তপন সেনের

Ganashakti


মহানগরজুড়ে বেআইনী নির্মাণের রমরমা কর্পোরেশনকে এড়িয়ে প্রোমোটার-পুলিস রফা চলছে

Ganashakti


মমতা বাদে সবাই অনিশ্চিত আজ মন্ত্রিসভায় রদবদল, শপথগ্রহণ

Ganashakti


এস জে ডি এ-র দুর্নীতির প্রতিবাদে কাল অবস্থান-বিক্ষোভ বামফ্রন্টের

Ganashakti


তৃণমূল কাউন্সিলরসহ ধৃত চার ইটভাটা শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানোয় হামলা কোতরংয়ে

Ganashakti


SARADHA CHIT FUND: চিট ফান্ড সংস্থার প্রতারকরা ধরা পড়লো সরকারী পর্যটক আবাসে

Ganashakti


SARADHA CHIT FUND: চিট ফান্ড সংস্থার প্রতারকরা ধরা পড়লো সরকারী পর্যটক আবাসে

Ganashakti


RAPE AT MADHYAMGRAM, WEST BENGAL: দায়সারা তদন্ত চালাচ্ছে পুলিস ধর্ষিতা কিশোরীর অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ বিকল হওয়ার আশঙ্কা বাড়ছে|

Ganashakti


অপরাধ দমন শাখাকে ঠুঁটো করে রেখে দিয়েছেন মমতা

Ganashakti


Wednesday, December 25, 2013

SNOWDEN: লক্ষ্য পূরণ হয়েছে, জানালেন স্নোডেন

Ganashakti


আর্থিক জালিয়াতির শিকার সাধারণ মানুষকে দ্রুত টাকা ফেরানোর জন্য একগুচ্ছ নতুন নিয়মের ঘোষণা করলো ‘সেবি’। লগ্নির বাজারে নজরদারির দায়িত্বে থাকা এই সংস্থা তল্লাশি এবং সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার ক্ষেত্রে নতুন বিধি ঘোষণা করেছে।

Ganashakti


আর্থিক জালিয়াতির শিকার সাধারণ মানুষকে দ্রুত টাকা ফেরানোর জন্য একগুচ্ছ নতুন নিয়মের ঘোষণা করলো ‘সেবি’। লগ্নির বাজারে নজরদারির দায়িত্বে থাকা এই সংস্থা তল্লাশি এবং সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার ক্ষেত্রে নতুন বিধি ঘোষণা করেছে।

Ganashakti


মুজফ্‌ফরনগর আশ্রয় শিবিরের দুরবস্থা নিয়ে অখিলেশ যাদবের সঙ্গে কথা বললেন প্রকাশ কারাত

Ganashakti

এক সংগ্রামী যিনি ফুলও ফোটাতেন পার্থ দে

Ganashakti


কর্পোরেট মহলকে খুশি করতে পারেননি। তাই খুশি হননি প্রধানমন্ত্রী। সেইজন্য পরিবেশ ও বনমন্ত্রক থেকে বিদায় নিতে হলো মন্ত্রী জয়ন্তী নটরাজনকে। প্রায় আড়াই বছর আগে অনেকটা একই কারণে পরিবেশ ও বনমন্ত্রক ছাড়তে হয়েছিল জয়রাম রমেশকে। কাজটা অবশ্য এতটা সহজ হতো না, যদি কংগ্রেসের নতুন নেতা রাহুল গান্ধী আম-জনতার প্রতি মেকি-দরদের রাশ টেনে কর্পোরেট মহলের আস্থা প্রার্থী না হতেন। পরিবেশমন্ত্রক থেকে জয়ন্তীকে সরিয়ে বলা হয়েছিল, তিনি দলের সংগঠনের গুরুদায়িত্ব পালন করবেন। অর্থাৎ আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে দলকে চাঙ্গা করার জন্য রাহুলের পরিকল্পনায় জয়ন্তীকে মন্ত্রিত্ব থেকে সরিয়ে আনা হয়েছে। কিন্তু এই ব্যাখ্যা যে নিছকই দৃষ্টি ঘোরানোর কৌশল, তা পরিষ্কার হয়ে যায় তার কয়েকঘণ্টা পর দেশের অন্যতম বণিকসভা ‘ফিকি’র সভায় রাহুল গান্ধীর বণিক-তোষণ ‍ভাষণ থেকে। ঐ সভায় রাহুল তাঁর পরিচিত গণ্ডি থেকে বেরিয়ে শিল্পপতিদের দাবির সঙ্গে সহমত পোষণ করে পরোক্ষে জয়ন্তীকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করান।

Ganashakti


শিক্ষক সমাজকে অপমান করে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে নিজের নম্বর বাড়ানোর চেষ্টা করছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। মুখ্যমন্ত্রীর নেওয়া পরীক্ষায় নাকি ভালো ফল হয়নি শিক্ষামন্ত্রীর। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর প্রতি বিরক্ত। মুখ্যমন্ত্রীর বিরক্তি প্রকাশের ফলে গদি হারানোর চিন্তায় উদ্বিগ্ন ব্রাত্য বসু। তাই তিনি উঠে পড়ে লেগেছেন, কিভাবে মুখ্যমন্ত্রীর মন পাওয়া যায়

Ganashakti


গ্রহণযোগ্য বিকল্পের সন্ধান করছেন মানুষ: বিমান বসু

Ganashakti


প্রথম মাঠ উপচে দ্বিতীয় মাঠ ভাসলো ২নম্বর জাতীয় সড়কও

Ganashakti


প্রথম মাঠ উপচে দ্বিতীয় মাঠ ভাসলো ২নম্বর জাতীয় সড়কও

Ganashakti


কলকাতায় বিরাট প্রতিবাদী মিছিলে লালবাজার অভিযান হামলা বন্ধ না হলে গণপ্রতিরোধ, প্রশাসনকে হুঁশিয়ারি বামফ্রন্টের

Ganashakti


BUDHADEB BHATTACHARJEE AT BURDWAN ON 24-12-2013: ভয়ের বাঁধন ছিঁড়ে বর্ধমানে জনস্রোত সন্ত্রাসের মুঠো চেপে ধরতে হবে, তৈরি হোন : ভট্টাচার্য

Ganashakti


কলকাতা, ২৪শে ডিসেম্বর- মধ্যমগ্রামের সেই কিশোরীর অবস্থা এখনও সঙ্কটজনক। শরীরের বেশিরভাগ অংশই পুড়ে গেছে। আর জি কর হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে গরিব ঐ কিশোরী। ধর্ষণের পরেও ফের হুমকি, আক্রমণের মুখে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল মেয়েটি। - See more at: http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50196#sthash.nv9DXOzv.dpuf

Ganashakti


Tuesday, December 24, 2013

Minor girl dragged inside taxi and raped near Kolkata's Park Street


MANDELA

100 DAYS WORK IN WEST BENGAL

NANO AND ITS FUTURE

NBSTC

BRINDA KARAT: দিল্লিতে কমরেড শ্যামলী গুপ্তের স্মরণসভা মহিলাদের বিরুদ্ধে আক্রমণ প্রতিহত করতে হবে|

Ganashakti


BRINDA KARAT: দিল্লিতে কমরেড শ্যামলী গুপ্তের স্মরণসভা মহিলাদের বিরুদ্ধে আক্রমণ প্রতিহত করতে হবে|

Ganashakti


JUSTICE AK GANGULY: ‘ক্ষমতাশীল মহলের বিরুদ্ধে রায় দেওয়ায় পরিকল্পিত প্রচার’ অভিযোগ খণ্ডন, তদন্তের পদ্ধতি নিয়ে , প্রধান বিচারপতিকে চিঠি দিলেন গাঙ্গুলি

http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50142

সরকারী সাহায্য নয়, আদর্শের চিকিৎসার জন্য পাশে দাঁড়ালেন বামপন্থী বিধায়ক

Ganashakti


গণতন্ত্রের উপর আক্রমণের বিরুদ্ধে অবস্থান-বিক্ষোভ বামপন্থীদের

Ganashakti


গণতন্ত্রের উপর আক্রমণের বিরুদ্ধে অবস্থান-বিক্ষোভ বামপন্থীদের

Ganashakti


EXHIBITION OF MUSCLE POWER BY MAMATA BANERJEE: পেশিশক্তির আস্ফালন

Ganashakti


KANYASHREE PROJECT IN WEST BENGAL: কৃষিঋণ, সংখ্যালঘুদের সাহায্যে ব্যর্থতা, কন্যাশ্রীর হতশ্রী চেহারা স্পষ্ট ব্যাঙ্ক-সরকারের বৈঠকে

Ganashakti


KANYASHREE PROJECT IN WEST BENGAL: কৃষিঋণ, সংখ্যালঘুদের সাহায্যে ব্যর্থতা, কন্যাশ্রীর হতশ্রী চেহারা স্পষ্ট ব্যাঙ্ক-সরকারের বৈঠকে

Ganashakti


NREGA: গড় বাড়াতে রেগায় একই পরিবারকে বারবার কাজ দেওয়ার নির্দেশ বর্ধমানে

Ganashakti


NREGA: গড় বাড়াতে রেগায় একই পরিবারকে বারবার কাজ দেওয়ার নির্দেশ বর্ধমানে

Ganashakti


বেআইনী বালির লরি আটকে তৃণমূলের মার খেলেন অফিসাররা

Ganashakti


বেআইনী বালির লরি আটকে তৃণমূলের মার খেলেন অফিসাররা

Ganashakti


LALBAZAR-KOLKATA: তৃণমূলের হামলার প্রতিবাদে আজ লালবাজার অভিযান বামফ্রন্টের

Ganashakti


RAPE IN WEST BENGAL: ফের আক্রান্ত হয়ে গায়ে আগুন দিলো মধ্যমগ্রামে ধর্ষিতা সেই কিশোরী

Ganashakti


RAPE IN WEST BENGAL: ফের আক্রান্ত হয়ে গায়ে আগুন দিলো মধ্যমগ্রামে ধর্ষিতা সেই কিশোরী

Ganashakti


KUNAL GHOSH, MP: এখন আর জবানবন্দী দেবেন না, ভোল বদলে জানালেন কুণাল

Ganashakti


শিক্ষকদের হার্মাদ বলায় শিক্ষামন্ত্রীকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বললো ওয়েবকুটা

Ganashakti


Monday, December 23, 2013

Left rally in Kolkata attacked, 8 injured

http://timesofindia.indiatimes.com/city/kolkata/Left-rally-in-Kolkata-attacked-8-injured/articleshow/27762121.cms

তৃণমূলী সন্ত্রাসকে প্রতিহত করেই আমাদের কাজ করতে হবে|

Ganashakti


লালপতাকায় সেজে উঠেছে বর্ধমান শহর,কাল সমাবেশ

Ganashakti


লালপতাকায় সেজে উঠেছে বর্ধমান শহর,কাল সমাবেশ

Ganashakti


শিক্ষার ওপর পরিকল্পিত আক্রমণ করছে সরকার

Ganashakti


ভারত সরকার দেশের বিমানবন্দরগুলিকে বেসরকারী হাতে তুলে দিতে বদ্ধপরিকর। বেসরকারীকরণে সরকারী তৎপরতা দেখে এমনটাই মনে হচ্ছে। ইতোমধ্যেই দেশের ছ’টি বিমানবন্দরকে বেসরকারী হাতে হস্তান্তর করতে সরকার উঠেপড়ে লেগেছে।

Ganashakti


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর অধীনস্থ মন্ত্রীদের কাজের মূল্যায়ন করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া নম্বর অনুসারে কোনোও মন্ত্রী ভালো নম্বর পেয়েছেন, কেউ বা নিছকই পাস করেছেন। আবার বেশ কয়েকজন মন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীর বিচারে ফেল করেছেন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী নিজে কত নম্বর পেলেন? তিনি পাস করতে পেরেছেন না ডাহা ফেল?

Ganashakti


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর অধীনস্থ মন্ত্রীদের কাজের মূল্যায়ন করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া নম্বর অনুসারে কোনোও মন্ত্রী ভালো নম্বর পেয়েছেন, কেউ বা নিছকই পাস করেছেন। আবার বেশ কয়েকজন মন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীর বিচারে ফেল করেছেন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী নিজে কত নম্বর পেলেন? তিনি পাস করতে পেরেছেন না ডাহা ফেল?

Ganashakti


মার্কিনী ওকালতিতে ন্যূনতম বেতনের সমস্যা বুঝছে ভারতের সংবাদমাধ্যম?



http://ganashakti.com/bengali/news_details.php?newsid=50075

কীভাবে চলছে সারদার সংবাদমাধ্যম, প্রশ্ন উঠতে চলেছে সুপ্রিম কোর্টে



ইসলামপুরে শ্রমিক সমাবেশে শ্যামল চক্রবর্তী মুখ্যমন্ত্রীও শিল্প দেখতে পাচ্ছেন না, শিল্পমন্ত্রীকে ‘ফেল’ বলছেন নিজেই|



চুঁচুড়ায় সমাবেশ থেকে ফেরার পথে আক্রান্ত হলেন বামফ্রন্ট কর্মীরা

Ganashakti


নয়া উদারবাদী পথে পড়ুয়াদের মধ্যেও তৈরি করা হয়েছে সামাজিক বিভাজন

Ganashakti


সিঁথিতে বামফ্রন্টের মিছিলের ওপরে তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের হামলার বিরুদ্ধে রাজ্যের সর্বত্র প্রতিবাদী কর্মসূচী গ্রহণের জন্য বামফ্রন্টের নেতা ও কর্মীদের কাছে আবেদন করা হচ্ছে।

Ganashakti


সিঁথিতে বামফ্রন্টের মিছিলের ওপরে তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের হামলার বিরুদ্ধে রাজ্যের সর্বত্র প্রতিবাদী কর্মসূচী গ্রহণের জন্য বামফ্রন্টের নেতা ও কর্মীদের কাছে আবেদন করা হচ্ছে।

Ganashakti


চুঁচূড়ার নদীঘাটে জনপ্লাবনে ভট্টাচার্য ওরা ভয় পেয়েছে, তাই মারছে, মানুষ রুখবেনই

Ganashakti


চুঁচূড়ার নদীঘাটে জনপ্লাবনে ভট্টাচার্য ওরা ভয় পেয়েছে, তাই মারছে, মানুষ রুখবেনই

Ganashakti


পুলিসের উপস্থিতিতেই বামফ্রন্টের মিছিলে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা ইট পাথর

Ganashakti


পুলিসের উপস্থিতিতেই বামফ্রন্টের মিছিলে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা ইট পাথর

Ganashakti


পুলিসের উপস্থিতিতেই বামফ্রন্টের মিছিলে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা ইট পাথর

Ganashakti


Sunday, December 22, 2013

সারদা তদন্তে এখনও পরিষ্কার নয় ঠিক কত পরিমাণ টাকা নয়ছয় হয়েছে



http://zeenews.india.com/bengali/kolkatta/sarada-mystery-still-unclear_18778.html

পুলিসের শীর্ষমহলে লড়াই, একদল আইপিএস-দের বিরুদ্ধে মামলা করলেন আরেক দল

http://zeenews.india.com/bengali/zila/ips-vs-ips_18761.html

বামফ্রন্টের মিছিলে তৃণমূলের হামলা, আহত ১ মহিলা সমর্থক

বামফ্রন্টের মিছিলে তৃণমূলের হামলা, আহত ১ মহিলা সমর্থক

http://zeenews.india.com/bengali/kolkata/trinamool-attacked-on-left-rally_18768.html

'I have no regrets': Sacked Siliguri police chief defends decision to arrest IAS officer



Read more: http://www.dailymail.co.uk/indiahome/indianews/article-2516468/I-regrets-Sacked-Siliguri-police-chief-defends-decision-arrest-IAS-officer.html#ixzz2oCpNLzky 

Men’s rights group holds pro-Ganguly rally - The Hindu

Men’s rights group holds pro-Ganguly rally - The Hindu


Centre and State, not traders, responsible for price rise: Karat - The Hindu

Centre and State, not traders, responsible for price rise: Karat - The Hindu


WEST BENGAL EOW REDUCED TO AN ADMINISTRATIVE OFFICE TO DEFEND SARADHA CHIT FUND OFFENDERS

http://www.business-standard.com/article/current-affairs/west-bengal-eow-reduced-to-an-administrative-office-113122100595_1.html

বাঁকুড়ায় কমরেড শ্যামলী গুপ্ত’র স্মরণসভা আক্রমণ মোকাবিলা করেই এগিয়ে যেতে হবে! নেতৃবৃন্দ

Ganashakti


২৪শে জনসমুদ্রে ভাসবে বর্ধমান শহর

Ganashakti


মৃণাল সেনকে দেখে এলেন বিমান বসু,বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

Ganashakti


মারুতি শ্রমিকদের মুক্তির দাবিতে অনশনে পরিবারের সদস্যরা

Ganashakti


দিল্লির সভায় স্পষ্ট ঘোষণা ইলিয়াস জাউয়ার সাম্রাজ্যবাদের কাছে মাথা নোয়াবে না ভেনেজুয়েলা

Ganashakti


জন্মদিনে শ্রদ্ধায় স্মরণ কমরেড স্তালিনকে

Ganashakti


জন্মদিনে শ্রদ্ধায় স্মরণ কমরেড স্তালিনকে

Ganashakti


মৌলবাদ-সন্ত্রাসবাদ উত্থানের পিছনে আমেরিকা, বললেন শাহরিয়ার কবীর

Ganashakti


গড়িয়ায় গণ কনভেনশন শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্য, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান

Ganashakti


সি আই টি ইউ-র কাউন্সিলসভায় আহ্বান তীব্র আন্দোলন গড়েই তৃণমূলের আক্রমণ প্রতিরোধ করতে হবে

Ganashakti


সাধনের মুখে মমতার দপ্তরের সমালোচনা

Ganashakti


FREE AND FAIR ELECTION IN WEST BENGAL: অবাধ ভোটাধিকার

Ganashakti


২০১৩— গৌরবের সেরা, কলঙ্কের সেরা

Ganashakti


২০১৩— গৌরবের সেরা, কলঙ্কের সেরা

Ganashakti


মনমোহন নীতি থেকে দূরত্ব রাহুলের গলায় ভোটের কাজে নামাতে মন্ত্রীদের সরিয়ে আনছে মরিয়া কংগ্রেস

Ganashakti


আঞ্চলিক দল, বামপন্থীদের ফল ভালো হবে: কারাত

Ganashakti